ঢাকা ০৬:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে প্রাণ গেল গৃহবধূর

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে মনিরা বেগম (২২) নামের এক গৃহবধূ কেরি পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেপ্লক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়।
মনিরা বেগম মতলব উত্তর উপজেলার গজরা ইউনিয়নের গজরা গ্রামের আবদুল মান্নান ঢালীর মেয়ে। তিনি নিজ বাবার বাড়ি গজরায় করি পোকা মারার ট্যাবলেট খায়।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৪ বছর আগে উপজেলার আইঠাদি মাথাভাঙ্গা গ্রামের রাসেলের সাথে বিয়ে হয়।

পারিবারিক বিষয় নিয়ে বুধবার সকালে রাসেলের সঙ্গে অভিমান করে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন মনিরা। পরে তাকে উদ্ধার করে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নিহত মনিরা বেগমের মমিন নামে একবছরের ছেলে রয়েছে।

নিহত মনিরা বেগমের বাবা আবদুল মান্নান ঢালী বলেন, মনিরা বেগমের বিয়ের সময় এক ভরি স্বর্ণ দেয়ার কথা ছিল। আমি এখনও দিতে পারিনি। স্বর্ণের জন্য শ্বশুর বাড়ি থেকে চাপ দেয় এবং বিভিন্ন সময় আমার মেয়েকে মারধর করতো জামাই। এ নিয়ে কলহ হয়।

মতলব উত্তর থানার উপ-পরিদর্শক মো. আবদুল আউয়াল বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে মনিরা বেগম কেরির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে। লাশের সুরতহাল তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর বিস্তারিত জানানো হবে।

ট্যাগস :

মতলব উত্তরে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে প্রাণ গেল গৃহবধূর

আপডেট সময় : ০২:২৬:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মনিরুল ইসলাম মনির : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে মনিরা বেগম (২২) নামের এক গৃহবধূ কেরি পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেপ্লক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়।
মনিরা বেগম মতলব উত্তর উপজেলার গজরা ইউনিয়নের গজরা গ্রামের আবদুল মান্নান ঢালীর মেয়ে। তিনি নিজ বাবার বাড়ি গজরায় করি পোকা মারার ট্যাবলেট খায়।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৪ বছর আগে উপজেলার আইঠাদি মাথাভাঙ্গা গ্রামের রাসেলের সাথে বিয়ে হয়।

পারিবারিক বিষয় নিয়ে বুধবার সকালে রাসেলের সঙ্গে অভিমান করে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন মনিরা। পরে তাকে উদ্ধার করে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নিহত মনিরা বেগমের মমিন নামে একবছরের ছেলে রয়েছে।

নিহত মনিরা বেগমের বাবা আবদুল মান্নান ঢালী বলেন, মনিরা বেগমের বিয়ের সময় এক ভরি স্বর্ণ দেয়ার কথা ছিল। আমি এখনও দিতে পারিনি। স্বর্ণের জন্য শ্বশুর বাড়ি থেকে চাপ দেয় এবং বিভিন্ন সময় আমার মেয়েকে মারধর করতো জামাই। এ নিয়ে কলহ হয়।

মতলব উত্তর থানার উপ-পরিদর্শক মো. আবদুল আউয়াল বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে মনিরা বেগম কেরির ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে। লাশের সুরতহাল তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর বিস্তারিত জানানো হবে।