ঢাকা ০৫:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় সরকারি খাল দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার কাদলা ইউনিয়নের গুলবাহার চৌরাস্তা ব্রীজ সংলগ্ন রাস্তার দক্ষিন পাশ্বে দোঘর মৌজার বিএস ১/১নং খতিয়ান ভুক্ত সরকারি খালের উপর জোরপূর্বক দোকান ঘর স্থাপনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

অভিযোগকারী গুলবাহার গ্রামের কবির আহমেদ এর ছেলে মো: ইব্রাহিম জানান, আমার মালকীয় বাড়ির সাথে রাস্তার পূর্বপাশে খালের উপর একই গ্রামের মৃত করিম মজুমদারের ছেলে মোহাব্বত আলী মজুমদার গং কোন প্রকার অনুমোদন ছাড়াই দোকান নির্মাণ কাজ করতেছে। যাহা আমার পরিবারের জন্য ক্ষতিকর। আমি গত দু’দিন আগে ১৪/১১/২০২২ইং তারিখে কচুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে তিনি বিষয়টি সহকারি কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অভিযোগটি প্রেরন করেন।

এ অভিযোগের পর পরই স্থানীয় সহকারি ভূমি কর্মকর্তা (তহশিলদার) সরজমিন এসে কাজ না করার জন্য বলা হলেও মোহাব্বত আলী গং তা না মেনে নির্মান কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় কৃষকরা জানান, সম্প্রতি খালের উপর নতুন ব্রীজ নির্মিত হওয়ার সময় পানি চলাচল বন্ধ থাকায় প্রায় ২’হাজার কৃষকের ১ হাজার একর জমিতে চাষাবাদ না করতে পেরে গত বছর ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এখন আবার খাল ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ করায় আমরা কৃষকরা মারাত্মক ভাবে ক্ষতির শিকার হবো। অবিলম্বে খালের উপর থেকে স্থাপনা সরিয়ে পানি চলাচল বহাল রাখার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোড় দাবী জানান ভুক্তভোগী কৃষকরা।

এদিকে অভিযুক্ত মোহাব্বত আলী গং জানান, স্থানীয় একটি মহল স্থায়িত্বভাবে খাল ভরাট করে দোকান ঘর নির্মানের পদক্ষেপ নেয়। তাদের এ স্থায়িত্ব দোকানঘর নির্মান প্রতিরোধে আমাদের মালকীয় ভূমি সরকার একোয়ার করে নেয়ার খালের উপর পানি চলাচলের ব্যবস্থা রেখে খুঁটির উপর আমরা দোকান ঘর নির্মাণ কাজ করছি। সরকারের কোন বিঘ্ন ঘটলে আমরা স্বইচ্ছায় নির্মাণকৃত দোকান ঘর সরিয়ে নেব।

কচুয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ইবনে আল জায়েদ হোসেন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন-শ্রীঘই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযোগকারী ইব্রাহিম প্রশাসনের নিকট ন্যায় বিচার পাবার দাবী জানান।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

স্কুলের শ্রেণিকক্ষে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় ছাত্রীসহ প্রধান শিক্ষক আটক

কচুয়ায় সরকারি খাল দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৪:০৪:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার কাদলা ইউনিয়নের গুলবাহার চৌরাস্তা ব্রীজ সংলগ্ন রাস্তার দক্ষিন পাশ্বে দোঘর মৌজার বিএস ১/১নং খতিয়ান ভুক্ত সরকারি খালের উপর জোরপূর্বক দোকান ঘর স্থাপনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

অভিযোগকারী গুলবাহার গ্রামের কবির আহমেদ এর ছেলে মো: ইব্রাহিম জানান, আমার মালকীয় বাড়ির সাথে রাস্তার পূর্বপাশে খালের উপর একই গ্রামের মৃত করিম মজুমদারের ছেলে মোহাব্বত আলী মজুমদার গং কোন প্রকার অনুমোদন ছাড়াই দোকান নির্মাণ কাজ করতেছে। যাহা আমার পরিবারের জন্য ক্ষতিকর। আমি গত দু’দিন আগে ১৪/১১/২০২২ইং তারিখে কচুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে তিনি বিষয়টি সহকারি কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অভিযোগটি প্রেরন করেন।

এ অভিযোগের পর পরই স্থানীয় সহকারি ভূমি কর্মকর্তা (তহশিলদার) সরজমিন এসে কাজ না করার জন্য বলা হলেও মোহাব্বত আলী গং তা না মেনে নির্মান কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় কৃষকরা জানান, সম্প্রতি খালের উপর নতুন ব্রীজ নির্মিত হওয়ার সময় পানি চলাচল বন্ধ থাকায় প্রায় ২’হাজার কৃষকের ১ হাজার একর জমিতে চাষাবাদ না করতে পেরে গত বছর ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এখন আবার খাল ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ করায় আমরা কৃষকরা মারাত্মক ভাবে ক্ষতির শিকার হবো। অবিলম্বে খালের উপর থেকে স্থাপনা সরিয়ে পানি চলাচল বহাল রাখার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোড় দাবী জানান ভুক্তভোগী কৃষকরা।

এদিকে অভিযুক্ত মোহাব্বত আলী গং জানান, স্থানীয় একটি মহল স্থায়িত্বভাবে খাল ভরাট করে দোকান ঘর নির্মানের পদক্ষেপ নেয়। তাদের এ স্থায়িত্ব দোকানঘর নির্মান প্রতিরোধে আমাদের মালকীয় ভূমি সরকার একোয়ার করে নেয়ার খালের উপর পানি চলাচলের ব্যবস্থা রেখে খুঁটির উপর আমরা দোকান ঘর নির্মাণ কাজ করছি। সরকারের কোন বিঘ্ন ঘটলে আমরা স্বইচ্ছায় নির্মাণকৃত দোকান ঘর সরিয়ে নেব।

কচুয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ইবনে আল জায়েদ হোসেন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন-শ্রীঘই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযোগকারী ইব্রাহিম প্রশাসনের নিকট ন্যায় বিচার পাবার দাবী জানান।