ঢাকা ১০:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আজ কড়্ইয়া ইউনিয়ন আ.লীগের বর্ধিত সভা, জনপ্রিয়তায় এগিয়ে সালাম সওদাগর

মো: রাছেল, কচুয়া : পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ব্যাপক প্রচার প্রচারণা, গনসংযোগ ও ভোটারদের সাথে মতবিনিময় শুরু করে দিয়েছে কচুয়া উপজেলার সকল ইউনিয়নে।

Model Hospital

আজ মঙ্গলবার আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমূল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বাচাই করার লক্ষে কড়ইয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা।

বর্ধিত সভাকে ঘিরে এলাকা সরগরম হয়ে উঠেছে। আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম সওদাগর, বর্তমান চেয়ারম্যান আহসান হাবীব জুয়েল, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক তারেক সামস্ মিঠু, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জিকে আলমগীর, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জিসান আহম্মেদ,উপজেলা যুবলীগের সদস্য মঞ্জুর এলাহী মজুমদার, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন কামাল। এদের মধ্যে নতুন নেতৃত্ব চাচ্ছে ইউনিয়ন ও আওয়ামী লীগের নেতৃবন্দ ও এলাকাবাসী।

সোমবার সরজমিনে কড়ইয়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া, কালচোঁ, দরিয়া হয়াতপুর, বাসাবাড়িয়া, সাদিপুরা চাঁদপুর, নলুয়া, লুন্তি, শ্রীরামপুর, আকানিয়া এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আজকের বর্ধিত সভাকে ঘিরে দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ করা গেছে।

ওই এলাকার সকলেই এ বৎসর ইউপি নির্বাচনে নৌকার নতুন মাঝি দেখতে চায়। নেতাকর্মীদের সাথে আলাপচারিতায় জানা যায়, বর্তমান সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির আস্থাভাজন প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সাালাম সওদাগর। ইতিমধ্যেই তিনি এলাকায় সাংসদের সহযোগীতায় বেশকিছু দৃশ্যমান উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড করেছেন। তার মধ্যে ইউনিয়নের সকল রাস্তার মোড়ে মোড়ে স্ট্রীট লাইট, রাস্তা ঘাট প্রসস্থকরণ, রাস্তাঘাট সংস্কার, স্কুল ও মাদ্রাসার নতুন ভবন নির্মানে সহযোগীতা করেন।

পাশাপাশি তিনি যুব সমাজকে নিয়ে মৎস্যচাষ, গবাদি পশু পালন, অনাবাদি জমিতে চাষাবাদে উদ্বুদ্ধ করে বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। করোনা কালীন সময়ে তিনি কড়ইয়া ইউনিয়নে অক্সিজেন সেবা প্রদানের পাশাপাশি লকডাউনের সময় কর্মহীন দিন মজুর ও অসহায় মানুষদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়ে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাছাড়া তিনি সব সময় গরীব ও অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়ে বিভিন্ন ভাবে তাদের সহযোগীতা প্রদান করে আসছেন। এসকল কারনেই তিনি ইউনিয়ন বাসীর কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

কড়ইয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল জলিল মেম্বার ও সহসভাপতি এনামুল হক মিন্টু , আলী আকবর শেট জানান, আজ আমাদের ইউনিয়নে বর্ধিত সভা। এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণা ও জনসমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন আমাদের ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম সওদাগর । তাকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দিলে কড়ইয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদটি সহজে আওয়ামী লীগের দখলে থাকবে। তার পক্ষে দলের সকল নেতাকর্মীরা একত্রে হয়ে কাজ করবে এবং জয় লাভ করবে নৌকা প্রতীক এমন আশা করছেন তারা।

ইউনিয়ন যুবলীগের ডাক্তার মনির হোসেন জিলানী, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য সুমন সিকদার, ৪নং ওর্য়াড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন জানান, সালাম সওদাগরের ব্যক্তিগত ইমেজ, পারিবারিক ইমেজ ও দীর্ঘদিনের দলের নিবেদিত একজন সক্রিয় নেতা হিসেবে বেশ পরিচিতি রয়েছে এলাকাজুড়ে।

এছাড়া সমাজসেবক হিসাবে তিনি বেশ পরিচিত। করোনা মহামারীকালীন সময়ে তিনি কর্মহীন পরিবারের মাঝে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্য এবং অক্সিজেন সেবার মাধ্যমে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। তার রক্তশিরায় বহমান বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির জন্য রয়েছে শ্রদ্ধা, অফুরন্ত ভালোবাসা।

দলের যেকোনো দুঃসময় দল এবং দলের কর্মীদের জন্য নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন এই নেতা। তিনি নিজের সর্বোচ্চ চেষ্টার মাধ্যামে দলকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেয়ার চেষ্টা করেন। এবার তিনি কড়ইয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী। কড়ইয়া ইউনিয়নের তৃনমূলের নেতা কর্মী ও সাধারন ভোটাররা তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই।

সেই লক্ষ নিয়েই ইতোমধ্যে ভোটের মাঠে নেমে পড়েছেন তিনি। প্রায়ই প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটাররা রাজনীতির মাঠের পরীক্ষিত প্রবীন নেতা আব্দুস সালাম সওদাগরকে পেয়ে ব্যাপক সাড়া দিচ্ছেন। তিনি যেখানে যাচ্ছেন সেখানেই সাধারন মানুষের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন। তার নিজস্ব কোন চাওয়া পাওয়া নেই। তিনি রাজনীতিকে মানব সেবা হিসেবে মনে করেন। ভোটারদের কাছে এবার যোগ্য প্রার্থী হিসেবে আব্দুস সালাম সওদাগরকে দলীয় প্রতীক নৌকা মার্কায় মনোনয়ন দেওয়ার দাবী উঠছে সবর্ত্র।

একান্ত সাক্ষাৎকারে আব্দুস সালাম সওদাগর এ প্রতিবেদককে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষে মহীউদ্দীন খান আলমগীর স্যারের সহযোগীতায় কড়ইয়া ইউনিয়নকে উন্নয়নের রোলমডেল হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। তার পাশাপাশি ইউনিয়নবাসীর পাশে দাড়িয়ে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সেবা করে যেতে চাই।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুর শহরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

আজ কড়্ইয়া ইউনিয়ন আ.লীগের বর্ধিত সভা, জনপ্রিয়তায় এগিয়ে সালাম সওদাগর

আপডেট সময় : ০২:৩৭:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ নভেম্বর ২০২১

মো: রাছেল, কচুয়া : পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ব্যাপক প্রচার প্রচারণা, গনসংযোগ ও ভোটারদের সাথে মতবিনিময় শুরু করে দিয়েছে কচুয়া উপজেলার সকল ইউনিয়নে।

Model Hospital

আজ মঙ্গলবার আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমূল আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বাচাই করার লক্ষে কড়ইয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা।

বর্ধিত সভাকে ঘিরে এলাকা সরগরম হয়ে উঠেছে। আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম সওদাগর, বর্তমান চেয়ারম্যান আহসান হাবীব জুয়েল, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক তারেক সামস্ মিঠু, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জিকে আলমগীর, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জিসান আহম্মেদ,উপজেলা যুবলীগের সদস্য মঞ্জুর এলাহী মজুমদার, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোফাজ্জল হোসেন কামাল। এদের মধ্যে নতুন নেতৃত্ব চাচ্ছে ইউনিয়ন ও আওয়ামী লীগের নেতৃবন্দ ও এলাকাবাসী।

সোমবার সরজমিনে কড়ইয়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া, কালচোঁ, দরিয়া হয়াতপুর, বাসাবাড়িয়া, সাদিপুরা চাঁদপুর, নলুয়া, লুন্তি, শ্রীরামপুর, আকানিয়া এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আজকের বর্ধিত সভাকে ঘিরে দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ করা গেছে।

ওই এলাকার সকলেই এ বৎসর ইউপি নির্বাচনে নৌকার নতুন মাঝি দেখতে চায়। নেতাকর্মীদের সাথে আলাপচারিতায় জানা যায়, বর্তমান সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির আস্থাভাজন প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সাালাম সওদাগর। ইতিমধ্যেই তিনি এলাকায় সাংসদের সহযোগীতায় বেশকিছু দৃশ্যমান উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড করেছেন। তার মধ্যে ইউনিয়নের সকল রাস্তার মোড়ে মোড়ে স্ট্রীট লাইট, রাস্তা ঘাট প্রসস্থকরণ, রাস্তাঘাট সংস্কার, স্কুল ও মাদ্রাসার নতুন ভবন নির্মানে সহযোগীতা করেন।

পাশাপাশি তিনি যুব সমাজকে নিয়ে মৎস্যচাষ, গবাদি পশু পালন, অনাবাদি জমিতে চাষাবাদে উদ্বুদ্ধ করে বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। করোনা কালীন সময়ে তিনি কড়ইয়া ইউনিয়নে অক্সিজেন সেবা প্রদানের পাশাপাশি লকডাউনের সময় কর্মহীন দিন মজুর ও অসহায় মানুষদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়ে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাছাড়া তিনি সব সময় গরীব ও অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়ে বিভিন্ন ভাবে তাদের সহযোগীতা প্রদান করে আসছেন। এসকল কারনেই তিনি ইউনিয়ন বাসীর কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

কড়ইয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল জলিল মেম্বার ও সহসভাপতি এনামুল হক মিন্টু , আলী আকবর শেট জানান, আজ আমাদের ইউনিয়নে বর্ধিত সভা। এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণা ও জনসমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন আমাদের ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম সওদাগর । তাকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দিলে কড়ইয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদটি সহজে আওয়ামী লীগের দখলে থাকবে। তার পক্ষে দলের সকল নেতাকর্মীরা একত্রে হয়ে কাজ করবে এবং জয় লাভ করবে নৌকা প্রতীক এমন আশা করছেন তারা।

ইউনিয়ন যুবলীগের ডাক্তার মনির হোসেন জিলানী, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য সুমন সিকদার, ৪নং ওর্য়াড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন জানান, সালাম সওদাগরের ব্যক্তিগত ইমেজ, পারিবারিক ইমেজ ও দীর্ঘদিনের দলের নিবেদিত একজন সক্রিয় নেতা হিসেবে বেশ পরিচিতি রয়েছে এলাকাজুড়ে।

এছাড়া সমাজসেবক হিসাবে তিনি বেশ পরিচিত। করোনা মহামারীকালীন সময়ে তিনি কর্মহীন পরিবারের মাঝে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্য এবং অক্সিজেন সেবার মাধ্যমে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। তার রক্তশিরায় বহমান বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির জন্য রয়েছে শ্রদ্ধা, অফুরন্ত ভালোবাসা।

দলের যেকোনো দুঃসময় দল এবং দলের কর্মীদের জন্য নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন এই নেতা। তিনি নিজের সর্বোচ্চ চেষ্টার মাধ্যামে দলকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেয়ার চেষ্টা করেন। এবার তিনি কড়ইয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী। কড়ইয়া ইউনিয়নের তৃনমূলের নেতা কর্মী ও সাধারন ভোটাররা তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই।

সেই লক্ষ নিয়েই ইতোমধ্যে ভোটের মাঠে নেমে পড়েছেন তিনি। প্রায়ই প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটাররা রাজনীতির মাঠের পরীক্ষিত প্রবীন নেতা আব্দুস সালাম সওদাগরকে পেয়ে ব্যাপক সাড়া দিচ্ছেন। তিনি যেখানে যাচ্ছেন সেখানেই সাধারন মানুষের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন। তার নিজস্ব কোন চাওয়া পাওয়া নেই। তিনি রাজনীতিকে মানব সেবা হিসেবে মনে করেন। ভোটারদের কাছে এবার যোগ্য প্রার্থী হিসেবে আব্দুস সালাম সওদাগরকে দলীয় প্রতীক নৌকা মার্কায় মনোনয়ন দেওয়ার দাবী উঠছে সবর্ত্র।

একান্ত সাক্ষাৎকারে আব্দুস সালাম সওদাগর এ প্রতিবেদককে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষে মহীউদ্দীন খান আলমগীর স্যারের সহযোগীতায় কড়ইয়া ইউনিয়নকে উন্নয়নের রোলমডেল হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। তার পাশাপাশি ইউনিয়নবাসীর পাশে দাড়িয়ে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সেবা করে যেতে চাই।