ঢাকা ০২:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে শত্রুতায় সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন

মতলব উত্তর ব্যুরো : পূর্ব শত্রুতার জেরে রাতের আঁধারে সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে মো. সোহরাব হোসেন প্রধান মতলব উত্তর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

Model Hospital

সোমবার রাত ১১টার দিকে মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর গ্রামের মো. সোহরাব হোসেন প্রধানের সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন দেয়া দুর্বৃত্তরা। আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পেয়ে গোলাম হোসেন মেম্বার ডাক-চিৎকার দিলে বাড়ির ও আশপারে লোকজন এগিয়ে আসে। পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। গাড়ির নং চাঁদপুর-থ-১১-২১২৩।

এ গোলাম হোসেন মেম্বার গাড়ির কাছে বরইকান্দি গ্রামের শহিদ উল্লা মিয়াজীর ছেলে সৈকত (২২), নুরু মিয়াজীর ছেলে সুজন (২৮), মৃত. মতি মিয়াজীর ছেলে সহিদ উল্লাহ মিয়াজী ও এখলাছপুর গ্রামের নোয়াব আলী হাওলাদারের ছেলে ইকবাল (২৫) কে দেখতে পান। ডাক-চিৎকার দিলে তারা চলে যান।

গাড়ির মালিক মো. সোহরাব হোসেন বলেন, সোমবার রাতে গাড়ি নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে আমার গাড়ির সাথে সৈকত সাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় আঘাত পায়। রাস্তার পাশে পড়ে যান। এ জন্যই তারা আমার গাড়িতে রাতে আগুন দেয়। এতে আমার প্রায় ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়। গাড়িতে আগুন দেয়ার পরপরই মতলব উত্তর থানা পুলিশকে খবর দিলে উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজিত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ট্যাগস :

বিশাল মিছিল নিয়ে রাজপথে বুয়েট শিক্ষার্থীরা

মতলব উত্তরে শত্রুতায় সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন

আপডেট সময় : ০১:১৪:৫৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ নভেম্বর ২০২২

মতলব উত্তর ব্যুরো : পূর্ব শত্রুতার জেরে রাতের আঁধারে সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে মো. সোহরাব হোসেন প্রধান মতলব উত্তর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

Model Hospital

সোমবার রাত ১১টার দিকে মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর গ্রামের মো. সোহরাব হোসেন প্রধানের সিএনজি থ্রি-হুইলারে আগুন দেয়া দুর্বৃত্তরা। আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পেয়ে গোলাম হোসেন মেম্বার ডাক-চিৎকার দিলে বাড়ির ও আশপারে লোকজন এগিয়ে আসে। পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। গাড়ির নং চাঁদপুর-থ-১১-২১২৩।

এ গোলাম হোসেন মেম্বার গাড়ির কাছে বরইকান্দি গ্রামের শহিদ উল্লা মিয়াজীর ছেলে সৈকত (২২), নুরু মিয়াজীর ছেলে সুজন (২৮), মৃত. মতি মিয়াজীর ছেলে সহিদ উল্লাহ মিয়াজী ও এখলাছপুর গ্রামের নোয়াব আলী হাওলাদারের ছেলে ইকবাল (২৫) কে দেখতে পান। ডাক-চিৎকার দিলে তারা চলে যান।

গাড়ির মালিক মো. সোহরাব হোসেন বলেন, সোমবার রাতে গাড়ি নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে আমার গাড়ির সাথে সৈকত সাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় আঘাত পায়। রাস্তার পাশে পড়ে যান। এ জন্যই তারা আমার গাড়িতে রাতে আগুন দেয়। এতে আমার প্রায় ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়। গাড়িতে আগুন দেয়ার পরপরই মতলব উত্তর থানা পুলিশকে খবর দিলে উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজিত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।