ঢাকা ০৭:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় সাংবাদিকদের সাথে জেলা পরিষদ সদস্য প্রার্থী জোবায়ের হোসেনের মতবিনিময়

কচুয়া প্রতিনিধি : কচুয়া প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে জেলা পরিষদ সদস্য প্রার্থী মো. জোবায়ের হোসেনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

শুক্রবার দুপুরে কচুয়া প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা হয়। কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. আলমগীর তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুজন পোদ্দারের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী (হাতি প্রতীক) মো. জোবায়ের হোসেন।

এসময় তিনি বলেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক, সমাজের দর্পণ। আপনাদের লেখনির মাধ্যমে আপনারা সমাজের সকল অসংগতি তুলে ধরবেন। আসছে ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচনে কচুয়া আসনে আমি আবারো সদস্য পদ প্রার্থী। আপনারা জানেন গত নির্বাচনে আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলাম । এবং সুনামের সাথে ৫বছর দায়িত্ব পালন করেছি। আপনারা লক্ষ্য করবেন ইতিপূর্বে কিছু লোক ফ্যাক আইডির মাধ্যমে আমার বিরুদ্ধে ফেসবুকে কিছু অপপ্রচার চালায়। সাংবাদিক ভাইয়েরা খোঁজ নিয়ে দেখে এগুলো সত্য কিনা।

একটি চক্র আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমি সপ্তম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত অবস্থায় ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে রাজনীতিতে যোগদান করি।

পরবর্তীতে ইউনিয়ন ও উপজেলা ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে উপজেলার ১-৭নং ইউনিয়নের জেলা পরিষদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হই। আমি আশা করবো আপনাদের লেখনির মাধ্যমে আমার ভালো কাজগুলো জনগনের সামনে তুলে ধরবেন এবং আমার ভালো কাজে আমাকে সমর্থন জানাবেন।লড়াইয়ের মাঠে নির্বাচতি হয়ে কচুয়ার উন্নয়নে কিভাবে কাজ করা যায় তা নিয়ে সকল ভোটার ও আপনাদের সাথে আবারো মতবিনিময় করবো। আমি বিশ্বাস করি আগামী ১৭ অক্টোবর নির্বাচনে ভোটাররা আমাকে হাতি প্রতীকে তাদের একটি মূল্যবান ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন নির্বাচিত হয়ে আপনাদের সেবা করতে পারি।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কচুয়া পৌরসভার কাউন্সিলর আবুল খায়ের রুমি ও আব্দুল কাদের, কচুয়া প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবুল হোসেন, সাবেক সভাপতি মানিক ভৌমিক, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান ও আবুল কালাম আজাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বিপ্লব ও সদস্য আবু সাঈদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কচুয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুস, কোষাধ্যক্ষ শান্তু ধর, দপ্তর সম্পাদক ওমর ফারুক সাইম, কার্যনির্বাহী সদস্য আহসান হাবীব সুমন, সদস্য আমির হোসেন, মহসিন হোসেন ও সঞ্জিব ভৌমিক অপুসহ কচুয়া প্রেসক্লাবের অনান্য নেতৃবৃন্দ।

ট্যাগস :

কচুয়ায় সাংবাদিকদের সাথে জেলা পরিষদ সদস্য প্রার্থী জোবায়ের হোসেনের মতবিনিময়

আপডেট সময় : ০৩:৪৭:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর ২০২২

কচুয়া প্রতিনিধি : কচুয়া প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে জেলা পরিষদ সদস্য প্রার্থী মো. জোবায়ের হোসেনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

শুক্রবার দুপুরে কচুয়া প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা হয়। কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. আলমগীর তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুজন পোদ্দারের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী (হাতি প্রতীক) মো. জোবায়ের হোসেন।

এসময় তিনি বলেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক, সমাজের দর্পণ। আপনাদের লেখনির মাধ্যমে আপনারা সমাজের সকল অসংগতি তুলে ধরবেন। আসছে ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচনে কচুয়া আসনে আমি আবারো সদস্য পদ প্রার্থী। আপনারা জানেন গত নির্বাচনে আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলাম । এবং সুনামের সাথে ৫বছর দায়িত্ব পালন করেছি। আপনারা লক্ষ্য করবেন ইতিপূর্বে কিছু লোক ফ্যাক আইডির মাধ্যমে আমার বিরুদ্ধে ফেসবুকে কিছু অপপ্রচার চালায়। সাংবাদিক ভাইয়েরা খোঁজ নিয়ে দেখে এগুলো সত্য কিনা।

একটি চক্র আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমি সপ্তম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত অবস্থায় ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে রাজনীতিতে যোগদান করি।

পরবর্তীতে ইউনিয়ন ও উপজেলা ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে উপজেলার ১-৭নং ইউনিয়নের জেলা পরিষদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হই। আমি আশা করবো আপনাদের লেখনির মাধ্যমে আমার ভালো কাজগুলো জনগনের সামনে তুলে ধরবেন এবং আমার ভালো কাজে আমাকে সমর্থন জানাবেন।লড়াইয়ের মাঠে নির্বাচতি হয়ে কচুয়ার উন্নয়নে কিভাবে কাজ করা যায় তা নিয়ে সকল ভোটার ও আপনাদের সাথে আবারো মতবিনিময় করবো। আমি বিশ্বাস করি আগামী ১৭ অক্টোবর নির্বাচনে ভোটাররা আমাকে হাতি প্রতীকে তাদের একটি মূল্যবান ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন নির্বাচিত হয়ে আপনাদের সেবা করতে পারি।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কচুয়া পৌরসভার কাউন্সিলর আবুল খায়ের রুমি ও আব্দুল কাদের, কচুয়া প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবুল হোসেন, সাবেক সভাপতি মানিক ভৌমিক, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান ও আবুল কালাম আজাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বিপ্লব ও সদস্য আবু সাঈদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কচুয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. ইউনুস, কোষাধ্যক্ষ শান্তু ধর, দপ্তর সম্পাদক ওমর ফারুক সাইম, কার্যনির্বাহী সদস্য আহসান হাবীব সুমন, সদস্য আমির হোসেন, মহসিন হোসেন ও সঞ্জিব ভৌমিক অপুসহ কচুয়া প্রেসক্লাবের অনান্য নেতৃবৃন্দ।