ঢাকা ০৫:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুলতানাবাদ চেয়ারম্যান প্রার্থী সিফাতের নৌকার সমর্থনে দোয়ার মাধ্যমে প্রচারণা শুরু

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট হাবিবা ইসলাম সিফাত পথসভায় বক্তব্য রাখেন।

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউনিয়নে মিলাদ ও দোয়ার মাধ্যমে ইউপি চেয়ারম্যানের প্রচারণা কার্যক্রম শুরু করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট হাবিবা ইসলাম সিফাত।

Model Hospital

১৩ নভেম্বর শনিবার সকালে সুলতানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মিয়া মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. কবির হোসেন মাষ্টার, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খোকা পাটওয়ারী, সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট হাবিবা ইসলাম সিফাত, সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য এ্যাড. সেলিম মিয়া, যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যুগল কৃষ্ণ সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক সরকার।

সুলতানাবাদ ইউপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রায়মহন সরকারের সভাপতিত্বে ও যুবলীগ নেতা ইব্রাহীম খলিলের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন, সাবেক মেম্বার কামাল হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা রবীন্দ্র নাথ রায়, ছাত্রলীগ নেতা শরিফ প্রমুখ। মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা বিল্লাল হেসেন।

পথসভায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে সরকারের নানামুখী উন্নয়ন পদক্ষেপ ও কর্মসূচির কথা তুলে ধরে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করার করার আহ্বান জানান নেতারা। স্থানীয় নেতাকর্মীসহ জনগণের উদ্দেশে বীর মুক্তিযোদ্ধা মিয়া মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আগামী ২৮ নভেম্বর আপনারা ব্যালটের মাধ্যমে প্রমাণ করবেন, শেখ হাসিনাকে বলে দেবেন, আপনি আমাদেরকে যোগ্য প্রার্থী দিয়েছিলেন, আমরা এই এলাকার মানুষ সেই যোগ্য প্রার্থীকে প্রাণখুলে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আপনাকে প্রতিদান দিলাম।

বক্তারা বলেন, নৌকায় ভোট দিয়ে বাঙালি কখনো বিমুখ হয়নি। কারণ নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক, নৌকা উন্নয়নের প্রতীক, নৌকা গণতন্ত্রের প্রতীক। নৌকা সমৃদ্ধির প্রতীক। নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই আজ জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলার প্রধানমন্ত্রী আর বাংলার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, বিধবারা ভাতা পায়, বয়স্করা ভাতা পায়। আমার-আপনার সন্তানরা বছরের প্রথম দিনে বিনামূল্যে নতুন বই পায়। নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তিতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২

সুলতানাবাদ চেয়ারম্যান প্রার্থী সিফাতের নৌকার সমর্থনে দোয়ার মাধ্যমে প্রচারণা শুরু

আপডেট সময় : ০২:৩৮:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউনিয়নে মিলাদ ও দোয়ার মাধ্যমে ইউপি চেয়ারম্যানের প্রচারণা কার্যক্রম শুরু করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট হাবিবা ইসলাম সিফাত।

Model Hospital

১৩ নভেম্বর শনিবার সকালে সুলতানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মিয়া মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. কবির হোসেন মাষ্টার, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খোকা পাটওয়ারী, সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট হাবিবা ইসলাম সিফাত, সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য এ্যাড. সেলিম মিয়া, যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যুগল কৃষ্ণ সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক সরকার।

সুলতানাবাদ ইউপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রায়মহন সরকারের সভাপতিত্বে ও যুবলীগ নেতা ইব্রাহীম খলিলের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন, সাবেক মেম্বার কামাল হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা রবীন্দ্র নাথ রায়, ছাত্রলীগ নেতা শরিফ প্রমুখ। মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা বিল্লাল হেসেন।

পথসভায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বে সরকারের নানামুখী উন্নয়ন পদক্ষেপ ও কর্মসূচির কথা তুলে ধরে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করার করার আহ্বান জানান নেতারা। স্থানীয় নেতাকর্মীসহ জনগণের উদ্দেশে বীর মুক্তিযোদ্ধা মিয়া মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আগামী ২৮ নভেম্বর আপনারা ব্যালটের মাধ্যমে প্রমাণ করবেন, শেখ হাসিনাকে বলে দেবেন, আপনি আমাদেরকে যোগ্য প্রার্থী দিয়েছিলেন, আমরা এই এলাকার মানুষ সেই যোগ্য প্রার্থীকে প্রাণখুলে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আপনাকে প্রতিদান দিলাম।

বক্তারা বলেন, নৌকায় ভোট দিয়ে বাঙালি কখনো বিমুখ হয়নি। কারণ নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক, নৌকা উন্নয়নের প্রতীক, নৌকা গণতন্ত্রের প্রতীক। নৌকা সমৃদ্ধির প্রতীক। নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই আজ জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলার প্রধানমন্ত্রী আর বাংলার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, বিধবারা ভাতা পায়, বয়স্করা ভাতা পায়। আমার-আপনার সন্তানরা বছরের প্রথম দিনে বিনামূল্যে নতুন বই পায়। নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

নৌকায় ভোট দিয়েছেন বলেই জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছেন।