ঢাকা ০৬:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ, ২ জন আহত

এস এম ইকবাল : আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের ৯নং গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখ ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর কর্মী সমর্থকদেও মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে বাবু নামের এক যুবকরে হাত ভেংগে যাওয়া সহ ২ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার রাতে ওই ইউনিয়নের ধানুয়া বাজারে। গুরুতর আহত বাবুকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

Model Hospital

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ১১ মার্চ শুক্রবার সন্ধায় উক্ত ইউনিয়নের দীঘলদি গ্রামে জায়গা জমি নিয়ে দুই পক্ষের সৃষ্ট বিরোধ মীমাংসার জন্য শালিসী বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। এ বৈঠকে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ঘনিষ্ট হিসিবে পরিচিত আবুল বাসার বাসুর উপস্থিতি দেখে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখের লোকজন বাসুর উপস্থিতির কারন জানতে চায়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে বৈঠক হয়নি। পরে দু পক্ষের লোকজনই ধানুয়া বাজারে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

উক্ত খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার এস.আই নাছির উদ্দীন সঙ্গীয় পুলিশের ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে এসে উক্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। এ সময় ওই বাজারের ব্যবসায়ীরা দোকান পার্ট বন্ধ করতে বাধ্য হয়।

এ নিয়ে ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরী বলেন, নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখের লোকজন অহেতুক আমার ২ জন লোককে পিটিয়ে একজনের হাত ভেংগেছে অপরজনের আগুল ভেংগেছে।

অপরদিকে নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখ বলেন, সাবেক চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর লোকজন পূর্বের মতো তাদের অবৈধ প্রভাব বিস্তার করতে আমার লোকদের উপর সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে আমি নিজে থানায় ফোন করার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উক্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।

ট্যাগস :

ফরিদগঞ্জে আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষ, ২ জন আহত

আপডেট সময় : ০৪:৪৪:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ মার্চ ২০২২

এস এম ইকবাল : আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের ৯নং গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখ ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর কর্মী সমর্থকদেও মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে বাবু নামের এক যুবকরে হাত ভেংগে যাওয়া সহ ২ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার রাতে ওই ইউনিয়নের ধানুয়া বাজারে। গুরুতর আহত বাবুকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

Model Hospital

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ১১ মার্চ শুক্রবার সন্ধায় উক্ত ইউনিয়নের দীঘলদি গ্রামে জায়গা জমি নিয়ে দুই পক্ষের সৃষ্ট বিরোধ মীমাংসার জন্য শালিসী বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। এ বৈঠকে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ঘনিষ্ট হিসিবে পরিচিত আবুল বাসার বাসুর উপস্থিতি দেখে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখের লোকজন বাসুর উপস্থিতির কারন জানতে চায়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে বৈঠক হয়নি। পরে দু পক্ষের লোকজনই ধানুয়া বাজারে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

উক্ত খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার এস.আই নাছির উদ্দীন সঙ্গীয় পুলিশের ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে এসে উক্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। এ সময় ওই বাজারের ব্যবসায়ীরা দোকান পার্ট বন্ধ করতে বাধ্য হয়।

এ নিয়ে ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরী বলেন, নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখের লোকজন অহেতুক আমার ২ জন লোককে পিটিয়ে একজনের হাত ভেংগেছে অপরজনের আগুল ভেংগেছে।

অপরদিকে নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম শেখ বলেন, সাবেক চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরীর লোকজন পূর্বের মতো তাদের অবৈধ প্রভাব বিস্তার করতে আমার লোকদের উপর সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে আমি নিজে থানায় ফোন করার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উক্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।