ঢাকা ০৩:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা, উল্টো মামলা দিয়ে হয়রানি

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা উল্টো ভুক্তভোগি পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের চৌরাঙ্গা গ্রামে।

Model Hospital

সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, চৌরাঙ্গা গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে প্রবাসী মো. আকতার হোসেন জাকির প্রায় ১ যুগ পূর্বে রেকর্ডীয় জমির মালিক একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল হাই’র কাছ থেকে সাব-কবলা দলিল মূলে চৌরাঙ্গা মৌজার জে,এল নং ৪৮ ও বি এস ১০৫ নং খতিয়ানের ৯৭২ নং দাগে ২৫ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় সুত্রে মালিক হয়ে অধ্যবদি পর্যন্ত জমি ভোগ দখল করে আসছে। গত কয়েকদিন পূর্বে একই বাড়ির মৃত- আব্দুর রশিদের ছেলে আলী আহাম্মেদ জোরপূর্বক তার জমি দাবী করে ওই জায়গা অবৈধভাবে বালি-মাটি দিয়ে ভরাট করার চেষ্টা করলে আকতার হোসেন জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগম স্থানীয়দের সহযোগীতায় জমি ভরাট করা বন্ধ করে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আলী আহাম্মদ, স্ত্রী রোকেয়া বেগম, পুত্রবধূ পিংকি ও সুরমা জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগমকে গালমন্দ ও মারতে তেড়ে আসে এবং আকতার হোসেন জাকির গংদের আসামি করে ইউনিয়ন পরিষদ, ফরিদগঞ্জ থানা ও চাঁদপুর আদালতে ৫ টি মামলা দায়ের করে। এদিকে আলী আহাম্মদ গংরা প্রতিনিয়ত জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগমকে মারধরসহ ক্ষতিসাধন করার হুমকি দিয়ে আসছে বলে তারা জানায়।

এ বিষয়ে জমি বিক্রেতা আব্দুল হাই’র মেয়ে আয়েশা বেগম বলেন, আমার বাবা মৃত্যুর পূর্বে চৌরাঙ্গা মৌজার ১০৫ নং বিএস খতিয়ানের ৯৭২ দাগে ৩৫ শতাংশ জমির মধ্যে ২৫ শতাংশ জমি আকতার হোসেন জাকিরের কাছে বিক্রি করে এবং বাকী ১০ শতাংশ জমি আলী আহাম্মদের কাছে বিক্রি করে। ইতিপূর্বে আলী আহাম্মদ গংরা জোরপূর্বক জাকিরের জমিতে বালি- মাটি ভরাট করার চেষ্টা করে এবং তারা আমার প্রয়াত বাবা ও আমাদেরকে প্রতিনিয়ত গালমন্দ করে।

এ ঘটনার বিষয়ে আলী আহাম্মদ বলেন, আমি আব্দুল হাই ও রশিদা বেগমের কাছ থেকে সাব-কবলা দলিল মূলে জমি ক্রয় করেছি, আকতার হোসেন জাকির গংরা আমার সম্পত্তি জোরপূর্বক ভোগদখল করে আসছে।

এ বিষয়ে জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগম বলেন, আমার স্বামী দীর্ঘদিন পূর্বে পার্শ্ববর্তী প্রয়াত আব্দুল হাই’র কাছ থেকে ২৫ শতাংশ জমি ক্রয় করে ভোগদখল করে আসছিল।

আমার স্বামী প্রবাসে থাকার সুযোগে গত’কয়েকদিন পূর্বে একই বাড়ির আলী আহাম্মদ গংরা আমাদের সম্পত্তি নিজেদের দাবি করে জোরপূর্বক বালি-মাটি দিয়ে ভরাট করার চেষ্টা করলে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাঁধা প্রদান করায় তারা আমাদেরকে মারতে তেড়ে আসে এবং ইতিপূর্বে আমাদেরকে হয়রানি করার জন্য ৫ টি মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আমি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা, উল্টো মামলা দিয়ে হয়রানি

আপডেট সময় : ০২:০৭:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা উল্টো ভুক্তভোগি পরিবারকে মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের চৌরাঙ্গা গ্রামে।

Model Hospital

সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, চৌরাঙ্গা গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে প্রবাসী মো. আকতার হোসেন জাকির প্রায় ১ যুগ পূর্বে রেকর্ডীয় জমির মালিক একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল হাই’র কাছ থেকে সাব-কবলা দলিল মূলে চৌরাঙ্গা মৌজার জে,এল নং ৪৮ ও বি এস ১০৫ নং খতিয়ানের ৯৭২ নং দাগে ২৫ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় সুত্রে মালিক হয়ে অধ্যবদি পর্যন্ত জমি ভোগ দখল করে আসছে। গত কয়েকদিন পূর্বে একই বাড়ির মৃত- আব্দুর রশিদের ছেলে আলী আহাম্মেদ জোরপূর্বক তার জমি দাবী করে ওই জায়গা অবৈধভাবে বালি-মাটি দিয়ে ভরাট করার চেষ্টা করলে আকতার হোসেন জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগম স্থানীয়দের সহযোগীতায় জমি ভরাট করা বন্ধ করে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আলী আহাম্মদ, স্ত্রী রোকেয়া বেগম, পুত্রবধূ পিংকি ও সুরমা জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগমকে গালমন্দ ও মারতে তেড়ে আসে এবং আকতার হোসেন জাকির গংদের আসামি করে ইউনিয়ন পরিষদ, ফরিদগঞ্জ থানা ও চাঁদপুর আদালতে ৫ টি মামলা দায়ের করে। এদিকে আলী আহাম্মদ গংরা প্রতিনিয়ত জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগমকে মারধরসহ ক্ষতিসাধন করার হুমকি দিয়ে আসছে বলে তারা জানায়।

এ বিষয়ে জমি বিক্রেতা আব্দুল হাই’র মেয়ে আয়েশা বেগম বলেন, আমার বাবা মৃত্যুর পূর্বে চৌরাঙ্গা মৌজার ১০৫ নং বিএস খতিয়ানের ৯৭২ দাগে ৩৫ শতাংশ জমির মধ্যে ২৫ শতাংশ জমি আকতার হোসেন জাকিরের কাছে বিক্রি করে এবং বাকী ১০ শতাংশ জমি আলী আহাম্মদের কাছে বিক্রি করে। ইতিপূর্বে আলী আহাম্মদ গংরা জোরপূর্বক জাকিরের জমিতে বালি- মাটি ভরাট করার চেষ্টা করে এবং তারা আমার প্রয়াত বাবা ও আমাদেরকে প্রতিনিয়ত গালমন্দ করে।

এ ঘটনার বিষয়ে আলী আহাম্মদ বলেন, আমি আব্দুল হাই ও রশিদা বেগমের কাছ থেকে সাব-কবলা দলিল মূলে জমি ক্রয় করেছি, আকতার হোসেন জাকির গংরা আমার সম্পত্তি জোরপূর্বক ভোগদখল করে আসছে।

এ বিষয়ে জাকিরের স্ত্রী শিরিনা বেগম বলেন, আমার স্বামী দীর্ঘদিন পূর্বে পার্শ্ববর্তী প্রয়াত আব্দুল হাই’র কাছ থেকে ২৫ শতাংশ জমি ক্রয় করে ভোগদখল করে আসছিল।

আমার স্বামী প্রবাসে থাকার সুযোগে গত’কয়েকদিন পূর্বে একই বাড়ির আলী আহাম্মদ গংরা আমাদের সম্পত্তি নিজেদের দাবি করে জোরপূর্বক বালি-মাটি দিয়ে ভরাট করার চেষ্টা করলে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাঁধা প্রদান করায় তারা আমাদেরকে মারতে তেড়ে আসে এবং ইতিপূর্বে আমাদেরকে হয়রানি করার জন্য ৫ টি মিথ্যা মামলা দিয়েছে। আমি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।