ঢাকা ০৭:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের দোকান দখলের চেষ্টা, আদালতের নিষেধাজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশমুখে একটি দোকান দখলের পায়তারা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শহরের প্রাণকেন্দ্রে কালীবাড়ি মন্দিরের সামনে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশ মুখে একটি দোকান দখল নিয়ে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমকে অতর্কিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনা ঘটেছে। বেশ কিছুদিন যাবৎ তিনি চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের ও চাঁদপুর আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা করেছেন।
আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন পেশী শক্তি ব্যবহার করে রোটারিয়ান রহিমা বেগমের মালিকানাধীন দোকানটি রাতের আধারে দখল করার পাঁয়তারা করছে।
এই ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ আব্দুর রশিদকে অবহিত করা হলে তিনি এসআই শাহারিনকে ঘটনাস্থলে পাঠানো।
জানা যায়, ৯৩ নং চাঁদপুর মিউনিসিপ্যালিটি মৌজার নির্মাণাধীন মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে ৫০ পয়েন্ট ৫৮ সেন্টিমিটার একটি দোকান ২০১৮ সালে ২ ডিসেম্বর স্বর্ণখোলা রোডের মৃত সাদীর মিয়ার মেয়ে রোটারিয়ান রহিমা বেগম ৩০ লক্ষ টাকা মূল্য দিয়ে মফিজ উদ্দিন সরকারের কাছ থেকে দোকানটি ক্রয় করে।
কিন্তু সেই দোকানটি গুয়াখোলা রোডের মৃত হোসেন মিয়ার ছেলে আবুল হাসান লিটনের নজর পড়ে। একজন নিরীহ মহিলার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে আবুল হাসান লিটন জোরপূর্বক সেই দোকানটি দখল করার চেষ্টা করেন। এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগম উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।
আহত রহিমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় আবুল হাসান লিটন ও তার স্ত্রী রুমা আক্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
দোকান মালিক রহিমা বেগম জানান, ২০১৮ সালে দোকানটি ক্রয় করার পর সেটি দখল নিতে আবুল হাসান লিটন চেষ্টা চালায়। রাতের আধারে দলবল নিয়ে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করলে বাধা দিলে লিটন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। সে পেশী শক্তি ব্যবহার করে অন্যের দোকান দখল করার চেষ্টা চালায়। আবুল হাসান লিটন সরকারী জায়গা দখল সহ হিন্দুদের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হলে সে আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে দোকানটি দখল করার পাঁয়তারা লিপ্ত রয়েছে। সে বিভিন্নভাবে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে, রাতের আধারে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের বাড়ির সামনে পাঠাচ্ছে। এখন আমরা পুরো পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।  ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা করে দোকানটি বুঝিয়ে দেওয়ার জোর দাবি জানান প্রশাসনের কাছে।
এদিকে এই বিষয়ে অভিযুক্ত আবুল হাসান লিটনের মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার ফোন করেও সেই রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
চাঁদপুর মডেল থানার এসআই শাহরিন জানান, আদালতে একটি নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই লক্ষ্যে উভয়পক্ষকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।
নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে যদি দোকানটি দখল করার চেষ্টা করে তাহলে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন

চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের দোকান দখলের চেষ্টা, আদালতের নিষেধাজ্ঞা

আপডেট সময় : ০১:৩৮:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২
নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশমুখে একটি দোকান দখলের পায়তারা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শহরের প্রাণকেন্দ্রে কালীবাড়ি মন্দিরের সামনে মদিনা শপিং সেন্টারের প্রবেশ মুখে একটি দোকান দখল নিয়ে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগমকে অতর্কিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনা ঘটেছে। বেশ কিছুদিন যাবৎ তিনি চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের ও চাঁদপুর আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা করেছেন।
আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রতিপক্ষ আবুল হাসান লিটন পেশী শক্তি ব্যবহার করে রোটারিয়ান রহিমা বেগমের মালিকানাধীন দোকানটি রাতের আধারে দখল করার পাঁয়তারা করছে।
এই ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ আব্দুর রশিদকে অবহিত করা হলে তিনি এসআই শাহারিনকে ঘটনাস্থলে পাঠানো।
জানা যায়, ৯৩ নং চাঁদপুর মিউনিসিপ্যালিটি মৌজার নির্মাণাধীন মদিনা শপিং সেন্টারে প্রবেশমুখে ৫০ পয়েন্ট ৫৮ সেন্টিমিটার একটি দোকান ২০১৮ সালে ২ ডিসেম্বর স্বর্ণখোলা রোডের মৃত সাদীর মিয়ার মেয়ে রোটারিয়ান রহিমা বেগম ৩০ লক্ষ টাকা মূল্য দিয়ে মফিজ উদ্দিন সরকারের কাছ থেকে দোকানটি ক্রয় করে।
কিন্তু সেই দোকানটি গুয়াখোলা রোডের মৃত হোসেন মিয়ার ছেলে আবুল হাসান লিটনের নজর পড়ে। একজন নিরীহ মহিলার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে আবুল হাসান লিটন জোরপূর্বক সেই দোকানটি দখল করার চেষ্টা করেন। এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে দোকান মালিক রোটারিয়ান রহিমা বেগম উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।
আহত রহিমা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় আবুল হাসান লিটন ও তার স্ত্রী রুমা আক্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।
দোকান মালিক রহিমা বেগম জানান, ২০১৮ সালে দোকানটি ক্রয় করার পর সেটি দখল নিতে আবুল হাসান লিটন চেষ্টা চালায়। রাতের আধারে দলবল নিয়ে দোকানটি দখল করার চেষ্টা করলে বাধা দিলে লিটন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। সে পেশী শক্তি ব্যবহার করে অন্যের দোকান দখল করার চেষ্টা চালায়। আবুল হাসান লিটন সরকারী জায়গা দখল সহ হিন্দুদের সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
আদালতের নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হলে সে আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে দোকানটি দখল করার পাঁয়তারা লিপ্ত রয়েছে। সে বিভিন্নভাবে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে, রাতের আধারে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের বাড়ির সামনে পাঠাচ্ছে। এখন আমরা পুরো পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।  ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা করে দোকানটি বুঝিয়ে দেওয়ার জোর দাবি জানান প্রশাসনের কাছে।
এদিকে এই বিষয়ে অভিযুক্ত আবুল হাসান লিটনের মুঠোফোনে বেশ কয়েক বার ফোন করেও সেই রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
চাঁদপুর মডেল থানার এসআই শাহরিন জানান, আদালতে একটি নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই লক্ষ্যে উভয়পক্ষকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।
নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে যদি দোকানটি দখল করার চেষ্টা করে তাহলে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।