ঢাকা ০৯:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে চাঁদপুরের সর্বস্তরের জনগণ ও দলীয় নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী, শিক্ষানুরাগী ও আইনজীবী, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন।

Model Hospital

এক শুভেচ্ছা বার্তায় হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাই এ দিনটি পালন করবে। বাংলা নতুন বছর সবার জন্য বয়ে নিয়ে আসুক অনাবিল সুখ, শান্তি আর সমৃদ্ধি। আমাদের অতীতের ব্যর্থতা পেছনে ফেলে নতুনকে বুকে ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে সামনের দিকে।

তিনি বলেন, বাংলা নববর্ষ আমাদের জাতীয় জীবনের এক আলোকিত আনন্দময় উৎসব। এই উৎসব সুপ্রাচীন ঐতিহ্যের তরঙ্গায়িত রূপ। পহেলা বৈশাখ থেকেই শুরু হয় নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার আকুলতা। নতুন বছর মানেই অতীতের সকল ব্যর্থতা, জরাজীর্ণতা পেছনে ফেলে নতুন উদ্দীপনা ও উৎসাহে নতুন গতিশীল কর্মপ্রবাহে সুন্দর, সমৃদ্ধ আগামী নির্মাণ করা।

প্রতিটি উৎসবের অন্তঃস্থলে থাকে ধনী-নির্ধন নির্বিশেষে সব মানুষের মিলন, পরোক্ষে একটি জাতির নানা সম্প্রদায়, ধর্ম-গোষ্ঠীকে সংযুক্ত করে নানাভাবে।

নববর্ষের প্রথম দিনে মহান আল্লাহর কাছে দেশের সকল মানুষের সুখ ও শান্তি কামনা করছি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন

বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

আপডেট সময় : ১২:৪২:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে চাঁদপুরের সর্বস্তরের জনগণ ও দলীয় নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী, শিক্ষানুরাগী ও আইনজীবী, সদর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন।

Model Hospital

এক শুভেচ্ছা বার্তায় হুমায়ুন কবির সুমন বলেন, বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাই এ দিনটি পালন করবে। বাংলা নতুন বছর সবার জন্য বয়ে নিয়ে আসুক অনাবিল সুখ, শান্তি আর সমৃদ্ধি। আমাদের অতীতের ব্যর্থতা পেছনে ফেলে নতুনকে বুকে ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে সামনের দিকে।

তিনি বলেন, বাংলা নববর্ষ আমাদের জাতীয় জীবনের এক আলোকিত আনন্দময় উৎসব। এই উৎসব সুপ্রাচীন ঐতিহ্যের তরঙ্গায়িত রূপ। পহেলা বৈশাখ থেকেই শুরু হয় নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার আকুলতা। নতুন বছর মানেই অতীতের সকল ব্যর্থতা, জরাজীর্ণতা পেছনে ফেলে নতুন উদ্দীপনা ও উৎসাহে নতুন গতিশীল কর্মপ্রবাহে সুন্দর, সমৃদ্ধ আগামী নির্মাণ করা।

প্রতিটি উৎসবের অন্তঃস্থলে থাকে ধনী-নির্ধন নির্বিশেষে সব মানুষের মিলন, পরোক্ষে একটি জাতির নানা সম্প্রদায়, ধর্ম-গোষ্ঠীকে সংযুক্ত করে নানাভাবে।

নববর্ষের প্রথম দিনে মহান আল্লাহর কাছে দেশের সকল মানুষের সুখ ও শান্তি কামনা করছি।