ঢাকা ০৫:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
স্ত্রীকে আসামী করে থানায় মামলা

শাহরাস্তিতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বসত ঘর থেকে মাদক উদ্ধার

চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সেক্রেটারির বসত ঘর থেকে মাদক উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।
এবিষয়ে একজনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।
জানা যায়, শাহরাস্তি পৌর শহরের ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম উপলতা বটতলা সংলগ্ন সেফায়েত উল্লাহ্ বেপারী বাড়ির আনিসুর রহমানের বসত ঘরে অভিযান চালিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।
থানা সূত্রে জানা যায়, ২৮ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহরাস্তি থানা পুলিশের এসআই মোঃ নুরুল আনোয়ার, এসআই জনি কান্তি দে, এসআই জাকির হোসেন ভূঁইয়া ও এএসআই খাজা মাইনুদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বেপারীর বসত ঘরে তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে।
এসময় তার স্ত্রী মাদক কারবারি কাজল বেগম (৩৮) পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়। তখন তারা আনিসের ঘর তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধারপূর্বক জব্দ করেন। বাড়ির লোকজনের উপস্থিতিতে ও তাদের স্বাক্ষ গ্রহন পূর্বক উক্ত গাঁজা জব্দ করেন।
এবিষয়ে থানায় আনিসের স্ত্রী কাজল বেগমকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শাহরাস্তি থানাধীন ১নং ওয়ার্ড পশ্চিম উপলতা জনৈক ছেফায়েত উল্যাহ বেপারী বাড়ির আনিছুর রহমানের বসত ঘরে অবৈধ মাদক ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে। উক্ত সংবাদটি প্রাপ্ত হয়ে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ ঘটনার দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় শাহরাস্তি থানা এলাকার পৌর ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম উপলতা ছেফায়েত উল্যাহ বেপারী বাড়ীর আনিছুর রহমানের বসত ঘরের সামনে যাওয়া মাত্রই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘরের মালিক কাজল বেগম (৪৫) তার শয়ন কক্ষ হতে তার হাতে থাকা একটি পোটলা খাটের উপর পেলে পিছনের দরজা দিয়ে বাহির হয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। তৎক্ষণাৎ উপস্থিত সাক্ষীদের নিয়ে পলাতক আসামী কাজল বেগমের বসত ঘরে প্রবেশ করে তার সামনের রুমের শয়ন কক্ষের খাটের উপর হতে একটি সাদা পলিব্যাগে সাদা পলিথিন দ্বারা মোড়ানো অবস্থায় ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। পরে পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে শাহরাস্তি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এব্যাপারে থানার ওসি তদন্ত মার্মা ত্রিপুরা বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই  নুরুল আনোয়ারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে পাঠাই। সেখানে গেলে মামলার আসামী কাজল বেগম তাদের সাথে খারাপ আচরণ করেন। তখন তারা তার বসত ঘর তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। এসময় একমাত্র আসামী কাজল বেগম পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে তাৎক্ষণিক পালিয়ে যেতে স্বক্ষম হয়। এবিষয়ে পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে শাহরাস্তি থানায় ১৬নং একটি মামলা, যার ধারা-২০১৮ইং সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬ (১) সারণির ১৯ (ক) রুজু করা হয়েছে।
স্থানিয়রা জানায়, ঘটনার দিন আনিসের স্ত্রী কাজল বেগমকে না পেয়ে পুলিশ তার পুত্র ফজলে রাব্বির স্ত্রী সুলতানাকে থানায় নিয়ে যায়। আটককৃত সুলতানাকে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দেয়া হয়। তারা আরও বলেন, আনিস ও তার স্ত্রী কাজল এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসা করে আসছে। এই এলাকার যুব সমাজকে ধংস করছে তারা। আনিস পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি হওয়ার পর সে এবং তার স্ত্রী মাদক ব্যবসায় আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। তাদেরকে স্বমূলে নিপাত করতে আইনের সহযোগিতা ও তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার মাধ্যমে কঠোর শাস্তির দাবি জানান তারা।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তিতে নিজের পায়ুপথে ৬ ইঞ্চি ডাব প্রবেশ করিয়ে বিপাকে যুবক

স্ত্রীকে আসামী করে থানায় মামলা

শাহরাস্তিতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের বসত ঘর থেকে মাদক উদ্ধার

আপডেট সময় : ১০:৪৫:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪
চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সেক্রেটারির বসত ঘর থেকে মাদক উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।
এবিষয়ে একজনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।
জানা যায়, শাহরাস্তি পৌর শহরের ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম উপলতা বটতলা সংলগ্ন সেফায়েত উল্লাহ্ বেপারী বাড়ির আনিসুর রহমানের বসত ঘরে অভিযান চালিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।
থানা সূত্রে জানা যায়, ২৮ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহরাস্তি থানা পুলিশের এসআই মোঃ নুরুল আনোয়ার, এসআই জনি কান্তি দে, এসআই জাকির হোসেন ভূঁইয়া ও এএসআই খাজা মাইনুদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বেপারীর বসত ঘরে তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে।
এসময় তার স্ত্রী মাদক কারবারি কাজল বেগম (৩৮) পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়। তখন তারা আনিসের ঘর তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধারপূর্বক জব্দ করেন। বাড়ির লোকজনের উপস্থিতিতে ও তাদের স্বাক্ষ গ্রহন পূর্বক উক্ত গাঁজা জব্দ করেন।
এবিষয়ে থানায় আনিসের স্ত্রী কাজল বেগমকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শাহরাস্তি থানাধীন ১নং ওয়ার্ড পশ্চিম উপলতা জনৈক ছেফায়েত উল্যাহ বেপারী বাড়ির আনিছুর রহমানের বসত ঘরে অবৈধ মাদক ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে। উক্ত সংবাদটি প্রাপ্ত হয়ে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ ঘটনার দিন বিকেল সাড়ে ৪টায় শাহরাস্তি থানা এলাকার পৌর ১নং ওয়ার্ডের পশ্চিম উপলতা ছেফায়েত উল্যাহ বেপারী বাড়ীর আনিছুর রহমানের বসত ঘরের সামনে যাওয়া মাত্রই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘরের মালিক কাজল বেগম (৪৫) তার শয়ন কক্ষ হতে তার হাতে থাকা একটি পোটলা খাটের উপর পেলে পিছনের দরজা দিয়ে বাহির হয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। তৎক্ষণাৎ উপস্থিত সাক্ষীদের নিয়ে পলাতক আসামী কাজল বেগমের বসত ঘরে প্রবেশ করে তার সামনের রুমের শয়ন কক্ষের খাটের উপর হতে একটি সাদা পলিব্যাগে সাদা পলিথিন দ্বারা মোড়ানো অবস্থায় ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। পরে পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে শাহরাস্তি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এব্যাপারে থানার ওসি তদন্ত মার্মা ত্রিপুরা বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই  নুরুল আনোয়ারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে পাঠাই। সেখানে গেলে মামলার আসামী কাজল বেগম তাদের সাথে খারাপ আচরণ করেন। তখন তারা তার বসত ঘর তল্লাশি দিয়ে ১ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। এসময় একমাত্র আসামী কাজল বেগম পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে তাৎক্ষণিক পালিয়ে যেতে স্বক্ষম হয়। এবিষয়ে পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে শাহরাস্তি থানায় ১৬নং একটি মামলা, যার ধারা-২০১৮ইং সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬ (১) সারণির ১৯ (ক) রুজু করা হয়েছে।
স্থানিয়রা জানায়, ঘটনার দিন আনিসের স্ত্রী কাজল বেগমকে না পেয়ে পুলিশ তার পুত্র ফজলে রাব্বির স্ত্রী সুলতানাকে থানায় নিয়ে যায়। আটককৃত সুলতানাকে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দেয়া হয়। তারা আরও বলেন, আনিস ও তার স্ত্রী কাজল এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসা করে আসছে। এই এলাকার যুব সমাজকে ধংস করছে তারা। আনিস পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি হওয়ার পর সে এবং তার স্ত্রী মাদক ব্যবসায় আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। তাদেরকে স্বমূলে নিপাত করতে আইনের সহযোগিতা ও তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার মাধ্যমে কঠোর শাস্তির দাবি জানান তারা।