ঢাকা ০৫:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে ধানক্ষেত থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার পূর্ব ষাটনল গ্রামে ধানক্ষেত থেকে সোহেল রানা (২৫) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Model Hospital

খবর পেয়ে শনিবার সকাল ১০ টার সময় ঘটনাস্থলে পৌছায় পুলিশ। নিহত সোহেল ওই গ্রামের নুরুল হক পাঠান ও রোকেয়া বেগমের ছেলে। তার রহস্যজনক মৃত্যুতে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোহেল প্রবাস থেকে এসে স্থানীয় কনু মার্কেটে রুহুল আমিনের দোকানে দর্জি কাজ করতো। প্রতিদিনের ন্যায় গত ১ এপ্রিল রাত ১০ টায় বাড়ির উদ্দেশ্যে চলে যায়। পরে সে আর রাতে বাড়িতে ফিরে নি।

সকাল ৯ টার দিকে রোকেয়া বেগম তার স্বামী অর্থাৎ সোহেলের বাবার কবরের কাছে গিয়ে ধানক্ষেতে তার লাশ দেখতে পান। রোকেয়া বেগমের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর এখনও কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল বলেন, খবর পেয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমে পাঠিয়েছি। হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিনি আরও বলেন, এটা একটা হত্যাকাণ্ড বলে আমরা ধারণা করছি। দুই চোখে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট আসলে সত্যতা বেরিয়ে আসবে। এবং পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে দোষীদের আটক করা হবে।

এসময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মঈনুল হোসেন, সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) ইয়াছির আরাফাত, মতলব উত্তর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাসুদ।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মতলব উত্তরে ধানক্ষেত থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:৪১:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ এপ্রিল ২০২২

মতলব উত্তর ব্যুরো : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার পূর্ব ষাটনল গ্রামে ধানক্ষেত থেকে সোহেল রানা (২৫) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Model Hospital

খবর পেয়ে শনিবার সকাল ১০ টার সময় ঘটনাস্থলে পৌছায় পুলিশ। নিহত সোহেল ওই গ্রামের নুরুল হক পাঠান ও রোকেয়া বেগমের ছেলে। তার রহস্যজনক মৃত্যুতে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোহেল প্রবাস থেকে এসে স্থানীয় কনু মার্কেটে রুহুল আমিনের দোকানে দর্জি কাজ করতো। প্রতিদিনের ন্যায় গত ১ এপ্রিল রাত ১০ টায় বাড়ির উদ্দেশ্যে চলে যায়। পরে সে আর রাতে বাড়িতে ফিরে নি।

সকাল ৯ টার দিকে রোকেয়া বেগম তার স্বামী অর্থাৎ সোহেলের বাবার কবরের কাছে গিয়ে ধানক্ষেতে তার লাশ দেখতে পান। রোকেয়া বেগমের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর এখনও কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল বলেন, খবর পেয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমে পাঠিয়েছি। হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিনি আরও বলেন, এটা একটা হত্যাকাণ্ড বলে আমরা ধারণা করছি। দুই চোখে জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট আসলে সত্যতা বেরিয়ে আসবে। এবং পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে দোষীদের আটক করা হবে।

এসময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মঈনুল হোসেন, সহকারী পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) ইয়াছির আরাফাত, মতলব উত্তর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাসুদ।