ঢাকা ০৬:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে চাঁদপুর সদরের দশ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন

মাসুদ হোসেন : শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে প্রচার-প্রচারণা। প্রার্থীরা প্রতীক আর নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে ছুটে যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।
নির্বাচনকে সামনে রেখে সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। প্রতিটি এলাকার অলিতে-গলিতে ঝুলছে দলীয় ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোষ্টার-ব্যানার। তবে ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনের উত্তাপ ততই বাড়ছে।
প্রার্থীরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের বাড়িতে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। ভোটকে সামনে রেখে প্রার্থীদের এখন ঘুম হারাম। এবারের নির্বাচনে রাতের বেলায় প্রার্থীরা প্রচারণায় বেশী সময় পার করছেন। নির্বাচনে জয়ী হতে প্রার্থীরা ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। সদর উপজেলার ১০টির মধ্যে ৮টি ইউনিয়নেই নৌকা আর স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বী হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভোটাররা।
এদিকে, নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে প্রার্থীদের মধ্যে প্রচারণার প্রতিযোগীতা। আগামি বৃহস্পতিবার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করতে সব ধরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচনী কর্মকর্তা। ওইদিন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হবে এমনটাই প্রত্যাশা এলাকার সাধারণ ভোটারদের।
সদর উপজেলার ১নং বিষ্ণুপুর, ২নং আশিকাটি, ৪নং শাহমাহমুদপুর, ৫নং রামপুর, ৬নং মৈশাদী, ৭নং তরপুরচন্ডী, ৮নং বাগাদী, ৯নং বালিয়া, ১২নং চান্দ্রা ও ১৩নং হানারচর ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে ২টি তে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আর বাকী ৮টিতে চলবে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিযোগীতার লড়াই। সেই সাথে ১০টি ইউনিয়নেই হবে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারন সদস্যদের মধ্যে বিমুল ভোট যুদ্ধ।
এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩২ জনসহ ৪০৮ জন সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ও সাধারন মেম্বার পদে প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তিতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২

শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে চাঁদপুর সদরের দশ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন

আপডেট সময় : ১২:০২:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর ২০২১
মাসুদ হোসেন : শেষ মুহুর্তে জমে উঠেছে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে প্রচার-প্রচারণা। প্রার্থীরা প্রতীক আর নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে ছুটে যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।
নির্বাচনকে সামনে রেখে সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। প্রতিটি এলাকার অলিতে-গলিতে ঝুলছে দলীয় ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোষ্টার-ব্যানার। তবে ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনের উত্তাপ ততই বাড়ছে।
প্রার্থীরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের বাড়িতে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। ভোটকে সামনে রেখে প্রার্থীদের এখন ঘুম হারাম। এবারের নির্বাচনে রাতের বেলায় প্রার্থীরা প্রচারণায় বেশী সময় পার করছেন। নির্বাচনে জয়ী হতে প্রার্থীরা ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। সদর উপজেলার ১০টির মধ্যে ৮টি ইউনিয়নেই নৌকা আর স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বী হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভোটাররা।
এদিকে, নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে প্রার্থীদের মধ্যে প্রচারণার প্রতিযোগীতা। আগামি বৃহস্পতিবার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করতে সব ধরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচনী কর্মকর্তা। ওইদিন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হবে এমনটাই প্রত্যাশা এলাকার সাধারণ ভোটারদের।
সদর উপজেলার ১নং বিষ্ণুপুর, ২নং আশিকাটি, ৪নং শাহমাহমুদপুর, ৫নং রামপুর, ৬নং মৈশাদী, ৭নং তরপুরচন্ডী, ৮নং বাগাদী, ৯নং বালিয়া, ১২নং চান্দ্রা ও ১৩নং হানারচর ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে ২টি তে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আর বাকী ৮টিতে চলবে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিযোগীতার লড়াই। সেই সাথে ১০টি ইউনিয়নেই হবে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারন সদস্যদের মধ্যে বিমুল ভোট যুদ্ধ।
এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩২ জনসহ ৪০৮ জন সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ও সাধারন মেম্বার পদে প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন।