ঢাকা ১২:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেনে ব্যাপক আয়োজনে

৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের বিদায় ও ক্লাশ পাঠি সম্পন্ন

চাঁদপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেন শিশু বিদ্যালয়ে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও ৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের ২০২৩ সালের বিদায় ও ক্লাশ পাঠি সম্পন্ন হয়েছে।

Model Hospital

এ বিদায় উপলক্ষে বিদ্যালয়ে আলোচনা সভা,মিলাদ মাহফিল,দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠান অত্যান্ত জাঁকজমক পূর্ন পরিবেশে অসংখ্য শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা পূর্বে প্রবদ্ধ পাঠ করেন,বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নিদা খান।

আজ রোববার(৩ ডিসেম্বর) দুপুরে শহরের ঐতিহ্যবাহী পালবাজার এলাকার বকুলতলা রোডস্থ রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেন শিশু বিদ্যালয়ের হল রুমে এ অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়।

বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মাহমুদা খানমের সভাপতিত্বে ও বিদ্যালয়ের উপধ্যক্ষ মোসাম্মদ রুবিনা মরিয়মের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন,দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক ও বিদ্যালয় উন্নয়ন পরিচালনা কমিটির কার্য্যকরী সভাপতি রোটা: কাজী শাহাদাত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সাংবাদিক মোহাম্মদ শওকত আলী,বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠ পত্রিকার ম্যানেজার সাংবাদিক মোহাম্মদ সেলিম রেজা।

এ সময় অনুষ্ঠানকে প্রানবন্ত করে তুলতে সার্বিক দায়িত্বে পালনে ছিলেন,বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শ্রী জনি চন্দ্র দাস,মিসেস নাজমা বেগম ভুঁইয়া, লক্ষী রানি মজুমদার,মোসাম্মদ জয়নব বীনতে সাইফুদ্দিন,নাছিমা আক্তার ও উম্মে কুলসুম মাজিয়া প্রমূখ।

এ সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দের্শে বিদ্যালয়ের ্অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম বলেন,আমরা এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষার আলো দান করতে গিয়ে জানপ্রান দিয়ে চেষ্টা করেছি। এবং শিক্ষার্থীদের ভাল মানের লেখাপড়া করাবার জন্য আমাদের চেস্টার কোন কমতি ছিল না। তিনি আরো বলেন,আমার উপদেশ হচ্ছে, লেখা পড়ার পাশাপাশি সভ্যতা,ভদ্রতা,শিষ্ঠাচার শিখতে হবে।

অনেকে লেখাপড়া শিখলেও আদব কায়দা জানেনা। তাদেরকে বলবো পিতা-মাতা ও গুরুজনকে শ্রদ্ধা করার জন্য তা’হলে তোমরা অনেক বড় হয়ে দেশের ও মানব কল্যানে কাজ করতে পারবে।
সবশেষ অতিথি ও সকল শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি মধ্যহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেনে ব্যাপক আয়োজনে

৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের বিদায় ও ক্লাশ পাঠি সম্পন্ন

আপডেট সময় : ০৯:৪৯:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

চাঁদপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেন শিশু বিদ্যালয়ে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও ৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের ২০২৩ সালের বিদায় ও ক্লাশ পাঠি সম্পন্ন হয়েছে।

Model Hospital

এ বিদায় উপলক্ষে বিদ্যালয়ে আলোচনা সভা,মিলাদ মাহফিল,দোয়া ও কেক কাটা অনুষ্ঠান অত্যান্ত জাঁকজমক পূর্ন পরিবেশে অসংখ্য শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা পূর্বে প্রবদ্ধ পাঠ করেন,বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নিদা খান।

আজ রোববার(৩ ডিসেম্বর) দুপুরে শহরের ঐতিহ্যবাহী পালবাজার এলাকার বকুলতলা রোডস্থ রেলওয়ে কিন্ডার গার্ডেন শিশু বিদ্যালয়ের হল রুমে এ অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়।

বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মাহমুদা খানমের সভাপতিত্বে ও বিদ্যালয়ের উপধ্যক্ষ মোসাম্মদ রুবিনা মরিয়মের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন,দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক ও বিদ্যালয় উন্নয়ন পরিচালনা কমিটির কার্য্যকরী সভাপতি রোটা: কাজী শাহাদাত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সাংবাদিক মোহাম্মদ শওকত আলী,বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠ পত্রিকার ম্যানেজার সাংবাদিক মোহাম্মদ সেলিম রেজা।

এ সময় অনুষ্ঠানকে প্রানবন্ত করে তুলতে সার্বিক দায়িত্বে পালনে ছিলেন,বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শ্রী জনি চন্দ্র দাস,মিসেস নাজমা বেগম ভুঁইয়া, লক্ষী রানি মজুমদার,মোসাম্মদ জয়নব বীনতে সাইফুদ্দিন,নাছিমা আক্তার ও উম্মে কুলসুম মাজিয়া প্রমূখ।

এ সময় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দের্শে বিদ্যালয়ের ্অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম বলেন,আমরা এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষার আলো দান করতে গিয়ে জানপ্রান দিয়ে চেষ্টা করেছি। এবং শিক্ষার্থীদের ভাল মানের লেখাপড়া করাবার জন্য আমাদের চেস্টার কোন কমতি ছিল না। তিনি আরো বলেন,আমার উপদেশ হচ্ছে, লেখা পড়ার পাশাপাশি সভ্যতা,ভদ্রতা,শিষ্ঠাচার শিখতে হবে।

অনেকে লেখাপড়া শিখলেও আদব কায়দা জানেনা। তাদেরকে বলবো পিতা-মাতা ও গুরুজনকে শ্রদ্ধা করার জন্য তা’হলে তোমরা অনেক বড় হয়ে দেশের ও মানব কল্যানে কাজ করতে পারবে।
সবশেষ অতিথি ও সকল শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি মধ্যহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়।