ঢাকা ০৪:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে জাল টাকার নোট সহ ২ যুবক কারাগারে

ফরিদগঞ্জে জনতা কর্তৃক আটককৃত জালটাকার ব্যবসায়ী ওমর ও সাগর।

এস এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় জাল টাকাসহ জনতা দুই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ১১ হাজার ৫’শ টাকার জাল নোট নিয়ে প্রতারনার অভিযোগে আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। ৪ ডিসেম্বর শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Model Hospital

আটক ব্যক্তিরা হলেন ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের শোল্লা গ্রামের মনির হোসেন খোকনের ছেলে ওমর (২২), কামতা গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে সাগর (২৫)। এরা দুজন সম্পর্কে আত্বীয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ৩ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে উপজেলার বালিথুবা বাজারে ছানা উল্লার কাঁচা মালের দোকানে ৪০ টাকায় ১ কেজি সিম কিনে ৫’শ টাকার জালনোট দিয়ে বাকী ৪শ৬০ টাকা নিয়ে যায়। পরে পাশাপাশি নান্নুর মুদি দোকানে গিয়ে একই ভাবে মুদি মাল নিয়ে আবারো ৫শ টাকার ১টি জালনোট দেয়। জাল টাকার নোট দেখে দোকানীর সন্দেহ হলে বাজার ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের ডেকে জাল টাকা শনাক্ত করা হয়। পরে তাদের পকেট তল্লাশি করে ১ হাজার টাকার ৮টি এবং ৫’শ টাকার ৭টি জাল নোটসহ ১১ হাজার ৫’শ টাকা উদ্ধার করে থানায় খবর দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন গতকাল শনিবার দুপুরে এ সংবাদদাতাকে বলেন, ১১ হাজার ৫শ টাকার জাল নোট নিয়ে মানুষের সাথে প্রতারনা করার অভিযোগে আটক দু-যুবকের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে মাদরাসাতু মুহাম্মদ সাঃ উদ্বোধন

ফরিদগঞ্জে জাল টাকার নোট সহ ২ যুবক কারাগারে

আপডেট সময় : ০৮:০৮:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২১

এস এম ইকবাল : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় জাল টাকাসহ জনতা দুই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ১১ হাজার ৫’শ টাকার জাল নোট নিয়ে প্রতারনার অভিযোগে আটককৃতদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। ৪ ডিসেম্বর শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Model Hospital

আটক ব্যক্তিরা হলেন ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের শোল্লা গ্রামের মনির হোসেন খোকনের ছেলে ওমর (২২), কামতা গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে সাগর (২৫)। এরা দুজন সম্পর্কে আত্বীয়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ৩ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে উপজেলার বালিথুবা বাজারে ছানা উল্লার কাঁচা মালের দোকানে ৪০ টাকায় ১ কেজি সিম কিনে ৫’শ টাকার জালনোট দিয়ে বাকী ৪শ৬০ টাকা নিয়ে যায়। পরে পাশাপাশি নান্নুর মুদি দোকানে গিয়ে একই ভাবে মুদি মাল নিয়ে আবারো ৫শ টাকার ১টি জালনোট দেয়। জাল টাকার নোট দেখে দোকানীর সন্দেহ হলে বাজার ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের ডেকে জাল টাকা শনাক্ত করা হয়। পরে তাদের পকেট তল্লাশি করে ১ হাজার টাকার ৮টি এবং ৫’শ টাকার ৭টি জাল নোটসহ ১১ হাজার ৫’শ টাকা উদ্ধার করে থানায় খবর দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন গতকাল শনিবার দুপুরে এ সংবাদদাতাকে বলেন, ১১ হাজার ৫শ টাকার জাল নোট নিয়ে মানুষের সাথে প্রতারনা করার অভিযোগে আটক দু-যুবকের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।