ঢাকা ১২:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে জাতীয় কর্মসূচির এক কোটিডোজ ভ্যাকসিনে ১৬৮৯৫ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি : জাতীয় পর্যায়ের কর্মসূচি হিসাবে আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার সারাদেশে এক কোটি লোককে ভ্যাকসিন প্রদানের জন্য চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনায় এই কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে। কর্মসূচির আওতায় অত্র উপজেলায় মোট ৩৬টি কেন্দ্রে একযোগে ভ্যাকসিন প্রদান করে। আজকের ভ্যাকসিন কার্যক্রমে এই উপজেলায় মোট ১৬৮৯৫ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়। তন্মধ্যে ১২৯৫৫ জন প্রথম ডো জ এবং ৩৯৪০ জনকে দ্বিতীয় ডো জ ভ্যাকসিন দেয়া হয়।
ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার পর্যন্ত ১৭৯৫৬৩ জন প্রথম ডোজ, ১৪৩১৪২জন দ্বিতীয় ডো জ এবং ৩০০০ জনকে বুস্টার ডো জ প্রদান সম্পন্ন হয়েছে বলে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন।
তিনি আরো জানান, শাহরাস্তি উপজেলার ৬৫ ভাগ মানুষ প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছেন। স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ভ্যাকসিনের আওতায় না আসা সাধারণ মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি তারিখ পর্যন্ত ভ্যাকসিন না পাওয়াদেরকে ভ্যাকসিন দেয়ার কর্মসূচি চলমান রাখবেন।
পরবর্তীতে ভ্যাকসিন এর আওতায় যারা আসেন নি তাদের বিষয়ে সরকার যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তা বাস্তবায়ন করা হবে। ডাক্তার নাসির বলেন, অতিমারি করোনা ও ওমিক্রন থেকে বাঁচতে সকলকে ভ্যাকসিন নেয়া উচিত। তিনি বলেন, অতিমারি করোনা ও ওমিক্রন থেকে বাঁচতে সকলকে ভ্যাকসিন নয়া ও মাক্স ব্যবহার করা উচিত। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নিন ও মাক্স ব্যবহার করুন । নিজে বাঁচুন, পরিবার কে বাঁচান এবং দেশ গড়ায় নিজের অবদান রাখুন।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুর শহরে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো অ্যাড. হুমায়ুন কবির সুমন

শাহরাস্তিতে জাতীয় কর্মসূচির এক কোটিডোজ ভ্যাকসিনে ১৬৮৯৫ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান

আপডেট সময় : ০৫:০৮:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২
নিজস্ব প্রতিনিধি : জাতীয় পর্যায়ের কর্মসূচি হিসাবে আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার সারাদেশে এক কোটি লোককে ভ্যাকসিন প্রদানের জন্য চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনায় এই কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে। কর্মসূচির আওতায় অত্র উপজেলায় মোট ৩৬টি কেন্দ্রে একযোগে ভ্যাকসিন প্রদান করে। আজকের ভ্যাকসিন কার্যক্রমে এই উপজেলায় মোট ১৬৮৯৫ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়। তন্মধ্যে ১২৯৫৫ জন প্রথম ডো জ এবং ৩৯৪০ জনকে দ্বিতীয় ডো জ ভ্যাকসিন দেয়া হয়।
ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার পর্যন্ত ১৭৯৫৬৩ জন প্রথম ডোজ, ১৪৩১৪২জন দ্বিতীয় ডো জ এবং ৩০০০ জনকে বুস্টার ডো জ প্রদান সম্পন্ন হয়েছে বলে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন।
তিনি আরো জানান, শাহরাস্তি উপজেলার ৬৫ ভাগ মানুষ প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছেন। স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ভ্যাকসিনের আওতায় না আসা সাধারণ মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি তারিখ পর্যন্ত ভ্যাকসিন না পাওয়াদেরকে ভ্যাকসিন দেয়ার কর্মসূচি চলমান রাখবেন।
পরবর্তীতে ভ্যাকসিন এর আওতায় যারা আসেন নি তাদের বিষয়ে সরকার যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তা বাস্তবায়ন করা হবে। ডাক্তার নাসির বলেন, অতিমারি করোনা ও ওমিক্রন থেকে বাঁচতে সকলকে ভ্যাকসিন নেয়া উচিত। তিনি বলেন, অতিমারি করোনা ও ওমিক্রন থেকে বাঁচতে সকলকে ভ্যাকসিন নয়া ও মাক্স ব্যবহার করা উচিত। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নিন ও মাক্স ব্যবহার করুন । নিজে বাঁচুন, পরিবার কে বাঁচান এবং দেশ গড়ায় নিজের অবদান রাখুন।