ঢাকা ০১:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে স্বাধীনতা যুদ্ধের বীজ অন্তর্নিহিত ছিল; মেজর রফিকুল ইসলাম

মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরে  শাহরাস্তিতে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (২১-ফেব্রুয়ারি) উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পরিষদ মিলনায়তনে এটি অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে রোববার দিবাগত রাতে দিবসের প্রথম প্রহরে শাহরাস্তি উপজেলা কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে ভাষা শহীদদের স্মরণে নির্মিতব্য শহীদ মিনারে স্থানীয় সাংসদের পক্ষে,
শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন,  উপজেলা পরিষদ, শাহরাস্তি মডেল থানা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, শাহরাস্তি প্রেসক্লাব, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিস, শাহরাস্তি উপজেলা আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি, শাহরাস্তি অপরূপা নাট্যগোষ্ঠী, সজাগ ফাউন্ডেশন, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনারের বেদীতে ফুলেল শুভেচ্ছা নিবেদন করেন।
সোমবার দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিরীন আক্তারের সভাপ্রদানে এতে ভার্চুয়াল ভিডিও টেলিকনফারেন্সিং বক্তব্য রাখেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার, বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার প্রাপ্ত, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি  মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৫২ সালে মায়ের ভাষা বাংলা কথা বলার অধিকার আদায়ে ও পূর্ব বাংলার দাপ্তরিক কাজে বাংলা ব্যবহারের দাবি করেছিল ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ। ওই সময় এ দাবির বিরোধিতা করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলার সূর্যসন্তানদের হত্যার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখার  অপচেষ্টা করেছিল। সেটি ১৯৫২ সালেই বাংলার দামাল ছেলেরা ওই ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেয় । মূলত ওই ভাষা আন্দোলনের মধ্যেই স্বাধীনতা আন্দোলনের বীজ অন্তর্নিহিত ছিল বলে পরবর্তীতে তা স্পষ্ট হয়। পরে ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলার আপামর জনতা স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা এবং মানচিত্র এ জাতিকে উপহার দেয়। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে সে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এভাবে পথ চললে আগামী প্রজন্ম অবশ্য একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ উপহার পাবে।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাছরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, শাহরাস্তি পৌর আ’লীগের আহবায়ক , পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, শাহরাস্তি সহকারি কমিশনার (ভূমি) আমজাদ হোসেন অর্ণব ও  তার সহধর্মিনী প্রভাষক ইংরেজি বিভাগ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাহিদা আফরিন ,শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আবদুল মান্নান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নাহার কাজল, ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ ইরান, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল মজুমদার, আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান মিন্টু, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ুন কবির, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার উপজেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান, সাবেক উপজেলা আ’লীগের সভাপতি বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান বিএসসি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এছাড়া বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের অফিসার, কর্মকর্তাবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান গন ও শিক্ষকবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ,  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষার্থীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
দিবসের তাৎপর্য আলোকে অনুষ্ঠিত রচনা ও উপস্থিত বক্তৃতা অনুষ্ঠানে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের তরফ থেকে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে স্বাধীনতা যুদ্ধের বীজ অন্তর্নিহিত ছিল; মেজর রফিকুল ইসলাম

আপডেট সময় : ০৪:৪১:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২২
মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরে  শাহরাস্তিতে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (২১-ফেব্রুয়ারি) উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পরিষদ মিলনায়তনে এটি অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে রোববার দিবাগত রাতে দিবসের প্রথম প্রহরে শাহরাস্তি উপজেলা কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে ভাষা শহীদদের স্মরণে নির্মিতব্য শহীদ মিনারে স্থানীয় সাংসদের পক্ষে,
শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন,  উপজেলা পরিষদ, শাহরাস্তি মডেল থানা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, শাহরাস্তি প্রেসক্লাব, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিস, শাহরাস্তি উপজেলা আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি, শাহরাস্তি অপরূপা নাট্যগোষ্ঠী, সজাগ ফাউন্ডেশন, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ শহীদদের স্মরণে শহীদ মিনারের বেদীতে ফুলেল শুভেচ্ছা নিবেদন করেন।
সোমবার দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিরীন আক্তারের সভাপ্রদানে এতে ভার্চুয়াল ভিডিও টেলিকনফারেন্সিং বক্তব্য রাখেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার, বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার প্রাপ্ত, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি  মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৫২ সালে মায়ের ভাষা বাংলা কথা বলার অধিকার আদায়ে ও পূর্ব বাংলার দাপ্তরিক কাজে বাংলা ব্যবহারের দাবি করেছিল ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ। ওই সময় এ দাবির বিরোধিতা করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলার সূর্যসন্তানদের হত্যার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখার  অপচেষ্টা করেছিল। সেটি ১৯৫২ সালেই বাংলার দামাল ছেলেরা ওই ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেয় । মূলত ওই ভাষা আন্দোলনের মধ্যেই স্বাধীনতা আন্দোলনের বীজ অন্তর্নিহিত ছিল বলে পরবর্তীতে তা স্পষ্ট হয়। পরে ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলার আপামর জনতা স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা এবং মানচিত্র এ জাতিকে উপহার দেয়। আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে সে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এভাবে পথ চললে আগামী প্রজন্ম অবশ্য একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ উপহার পাবে।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাছরিন জাহান চৌধুরী শেফালী, শাহরাস্তি পৌর আ’লীগের আহবায়ক , পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, শাহরাস্তি সহকারি কমিশনার (ভূমি) আমজাদ হোসেন অর্ণব ও  তার সহধর্মিনী প্রভাষক ইংরেজি বিভাগ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাহিদা আফরিন ,শাহরাস্তি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আবদুল মান্নান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নাহার কাজল, ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ ইরান, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল মজুমদার, আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান মিন্টু, শাহরাস্তি প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী হুমায়ুন কবির, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার উপজেলা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান, সাবেক উপজেলা আ’লীগের সভাপতি বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান বিএসসি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এছাড়া বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের অফিসার, কর্মকর্তাবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান গন ও শিক্ষকবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ,  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষার্থীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
দিবসের তাৎপর্য আলোকে অনুষ্ঠিত রচনা ও উপস্থিত বক্তৃতা অনুষ্ঠানে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের তরফ থেকে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।