ঢাকা ০১:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মতলব উত্তরে মাদকসেবী দুই ভাইয়ের অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক : মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের সরদারকান্দি গ্রামের চিহ্নিত দখলবাজ মাদকসেবী দুলাল হোসেন (৫৫) ও দেলোয়ার হোসেন (৪৫) এই দুই ভাইয়ের অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসি। তারা সরদারকান্দি গ্রামের মৃত পন্ডিত বেপারীর ছেলে।

Model Hospital

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ছাত্রজীবন থেকে দেলোয়ার মাদক সেবন, দখলবাজি, চাঁদাবাজী সহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড জড়িয়ে পরে। বিধায় তাকে প্রবাসে পাঠিয়ে দেয়া হয় পরিবারের সদস্যরা। তারপরও সামান্যটুকুও সংশোধন হয়নি। ছুটিতে দেশে এসেই রাতের আঁধারে জলসা সাজিয়ে গাঁজা ও মদ সেবনের আয়োজন করে। শুধু তাই নয় আপন বোনদেন সম্পত্তি গ্রাস করার জন্য দেলোয়ার একাধীকবার বোনদের প্রাণে মারার হুমকি দেয়। আপন বোনকে শ্লীতাহানীর করেছে বিধায় কোর্টে মামলা করেছে তার বোন।

মতলব কলেজে পড়ালেখায় অধ্যায়ণরত থাকাবস্থায় ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িয়ে ককটেল বিস্ফোরণ করে নামের পার্শ্বে ককটেল দেলোয়ার যোগ হয়। গত কয়েকদিন পূর্বে গ্রামের মানসিক প্রতিবন্ধী একজনকে বেধড়ক পেটায়। প্রকাশ্য তাকে মেরে ১০ লাখ টাকা দিয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদর্শন করে।

দুলাল ও স্থায়ীভাবে দেশে বেকার হতাশাগ্রস্থ হয়ে গাঁজায় আসক্ত হয়। বিধায় পরিবার পরিজন কিংবা আশপাশের লোকজনদের সাথে বাজে আচরণ করে থাকে।

তাদের এসব কারণে আতংকিত সরদারকান্দি গ্রামের সাধারণ লোকজন। এই অত্যাচার থেকে মুক্তি পেতে তারা প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভুক্তভোগীরা জানান, তারা দুই ভাই বেপরোয়া প্রকৃতির লোক।
গত কয়েক মাস পূর্বে তার আপন ভাগ্নাকে প্রাণে মারার হুমকি দিলে সে আত্মরক্ষার্থে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। মাতাল প্রকৃতির বিধায় কেউ তার সাথে ভয়ে কথা বলতে চায়না। আপন বোন ভাগ্না, ভগ্নিপতি কারো সাথেই সম্পর্ক নেই বললেই চলে। পরিবারের সকল সদস্যদের সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করাই তার মূল লক্ষ্য। পার্শ্ববর্তী স্কুল মাষ্টার (অলু প্রধান) এর নিকট জমি বিক্রি করে তাকে আজ পর্যন্ত জমি বুঝিয়ে দেয়নি। জমি দখল নিতে চাইলে উল্টো মারধর করে প্রাণে মারার হুমকি দেয় দেলোয়ার। তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে মারধর করে।

উপরোক্ত বিষয়ের আলোকে দেলোয়ার বেপারীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা। আমার পরিবারের সকলের সাথে সুসম্পর্ক রয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

মতলব উত্তরে মাদকসেবী দুই ভাইয়ের অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসী

আপডেট সময় : ০৩:১২:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের সরদারকান্দি গ্রামের চিহ্নিত দখলবাজ মাদকসেবী দুলাল হোসেন (৫৫) ও দেলোয়ার হোসেন (৪৫) এই দুই ভাইয়ের অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসি। তারা সরদারকান্দি গ্রামের মৃত পন্ডিত বেপারীর ছেলে।

Model Hospital

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ছাত্রজীবন থেকে দেলোয়ার মাদক সেবন, দখলবাজি, চাঁদাবাজী সহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড জড়িয়ে পরে। বিধায় তাকে প্রবাসে পাঠিয়ে দেয়া হয় পরিবারের সদস্যরা। তারপরও সামান্যটুকুও সংশোধন হয়নি। ছুটিতে দেশে এসেই রাতের আঁধারে জলসা সাজিয়ে গাঁজা ও মদ সেবনের আয়োজন করে। শুধু তাই নয় আপন বোনদেন সম্পত্তি গ্রাস করার জন্য দেলোয়ার একাধীকবার বোনদের প্রাণে মারার হুমকি দেয়। আপন বোনকে শ্লীতাহানীর করেছে বিধায় কোর্টে মামলা করেছে তার বোন।

মতলব কলেজে পড়ালেখায় অধ্যায়ণরত থাকাবস্থায় ছাত্রদলের রাজনীতিতে জড়িয়ে ককটেল বিস্ফোরণ করে নামের পার্শ্বে ককটেল দেলোয়ার যোগ হয়। গত কয়েকদিন পূর্বে গ্রামের মানসিক প্রতিবন্ধী একজনকে বেধড়ক পেটায়। প্রকাশ্য তাকে মেরে ১০ লাখ টাকা দিয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদর্শন করে।

দুলাল ও স্থায়ীভাবে দেশে বেকার হতাশাগ্রস্থ হয়ে গাঁজায় আসক্ত হয়। বিধায় পরিবার পরিজন কিংবা আশপাশের লোকজনদের সাথে বাজে আচরণ করে থাকে।

তাদের এসব কারণে আতংকিত সরদারকান্দি গ্রামের সাধারণ লোকজন। এই অত্যাচার থেকে মুক্তি পেতে তারা প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভুক্তভোগীরা জানান, তারা দুই ভাই বেপরোয়া প্রকৃতির লোক।
গত কয়েক মাস পূর্বে তার আপন ভাগ্নাকে প্রাণে মারার হুমকি দিলে সে আত্মরক্ষার্থে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। মাতাল প্রকৃতির বিধায় কেউ তার সাথে ভয়ে কথা বলতে চায়না। আপন বোন ভাগ্না, ভগ্নিপতি কারো সাথেই সম্পর্ক নেই বললেই চলে। পরিবারের সকল সদস্যদের সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করাই তার মূল লক্ষ্য। পার্শ্ববর্তী স্কুল মাষ্টার (অলু প্রধান) এর নিকট জমি বিক্রি করে তাকে আজ পর্যন্ত জমি বুঝিয়ে দেয়নি। জমি দখল নিতে চাইলে উল্টো মারধর করে প্রাণে মারার হুমকি দেয় দেলোয়ার। তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে মারধর করে।

উপরোক্ত বিষয়ের আলোকে দেলোয়ার বেপারীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা। আমার পরিবারের সকলের সাথে সুসম্পর্ক রয়েছে।