ঢাকা ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

তোমার দেওয়া ফুল

:: সজীব খান  ::

তোমার দেওয়া ফুল আজও রেখেছি যত্ন করে আমার হৃদয় পিঞ্জরে, অনুভবে শুধুই তুমি। তোমার সব অস্থিত্ব আমাকে ভাবায় যে সব সময়, তোমার মায়াবী রুপ আমাকে যে পাগল করে, তাই বার বার ছুটে যাই তোমার কাছে, নয়ন ঝুড়ে তোমায় দেখে ও স্বাধ মিটেনা। অপলক নয়নে তাকিয়ে কিছুক্ষণ দেখে চলে আসতে হয়, কারন বিজয়ের পথ যে অনেক দূর!

Model Hospital

তুমি কি আমায় অনুভব কর, আমি যে ভাবে তোমাকে অনুভবে রেখেছি। নাকি আমার এক কেন্দ্রীয় চাওয়াটা শুধুই পাগলামি। আরও আগে কেন তোমায় দেখা হলনা, যখন দেখা হল, তোমাকে একান্ত করে পেতে মন চাইলো, তখন নিজেদের একটা বাঁধায় কিছুটা সীমাবদ্ধতায় রাখতে হচ্ছে। তারপরও প্রেমের দোপাট্টা যখন উড়ছে মনে, তোমাকে ভুলে থাকা যে সম্ভব হচ্ছেনা। হাতে বালা আর কোপালে সিধুঁর দিলেই তো সব শেষ হয়না, নিজেকে সুখী ভাবা যায়না, এর ভেতরে ও যন্ত্রনা আর কষ্টে নিজেকে কুড়ে কুড়ে ধ্বংস করতে হচ্ছে। যখনি তোমার সাথে কথা হয়, তখন তুমি ও যে সুখী নও বুঝে নিজেকে আড়াঁল করে তোমাকে নয়ন ভরে দেখে চলে আসতে হয়। কারন তোমাকে যে আমি ভালবাসি, তোমার আমার মিলনের পথ অনেক দূর, তাই আমার অন্ধ প্রেমের কাহিনী অজন্ম ইতিহাস হয়ে থাকবে।

মাঝে মাঝে তোমার এক গেয়ামী মনোভাবে কষ্ট হলেও নিমিষেই সব ভুলে গিয়ে, ভাবি হয়তো বা ভুল সবটাই আমার, এটা আমার পাগলামি। সকাল সন্ধ্যা কিংবা রাতে মনের অজান্তেই প্রতিনিয়ত তোমায় মনে পড়ে, রাতে যখন তন্দ্রা ভাঙ্গে, তখন মনছুটে যায় তোমার কাছে, অনুভব করতে করতে ফের এক সময় চোখে তন্দ্রা নামে।

মাঝে মাঝে তোমার অস্থিত্ব, না বলা কথায় মনে করে দেয় তুমি যে আমার। তোমাকে কি দিয়ে উপমা দিবো জানিনা, আমার বুকভরা ভালবাসা সবই অর্থহীন, তারপর ও তোমাকে ভুলতে পারছিনা। কি করবো, উত্তর জানা নেই আমার, নিজেকে নিজে অনেক প্রশ্ন করি, নিজের প্রশ্নের ভেড়াজালে আমি যে নিজেই ঘরবন্ধী, তোমাকে ভুলতে অনেক চেষ্টা করি, কিন্তু পারিনা, এটাকি আমার অপরাধ, এত প্রেম আমার, সে প্রেমের কলি কি কখনে ফুটেনা।

আমার অস্থিত্বে ঝুড়ে তুমি, আমার নিঃশেষ যেন তোমার জন্য,বিশেষ মূহুত্বে যখন তোমায় মনে পড়ে, তখন আর কিছু ভাল লাগেনা, জানা অজানা সব কিছু নিয়েই তুমি, একাকিত্ব যখন আমাকে স্পর্শ করে, তখন তোমার জল্পনা কল্পনা আমাকে উদাসীন করে, উড় প্রেম আমার বার বার তোমার কাছে ছুটে যায়, তোমাকে পেতে চায় একান্ত নিজের করে। ভালবাসতে চাই মনপ্রান উজার করে। জানিনা কিসের এতটান, এ ছেলে মানুষী আমার কবে দূর হবে। এত ছেলে মানুষীর অবশান কোথায়। তোমার চোখের হাসি, ঠোঁটে লিপিষ্টিক, আর চোখ ঝোড়ানো হিজাব আমাকে উদাশীন করে। তুমি হাসলে ফুল ফুটে,তুমি কাঁদলে মেঘ ঝড়ে। তোমার আমার প্রেম নষ্টালজিয়া হবে কালের আর্বতনে। যখনি তুমি আসবে, তখনি দুই হাত মেলে তোমাকে বুকে নিবে এ অবুঝ মন আমার।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর বিজয়ের গান গাইলেন সুনামগঞ্জের সাংবাদিক রাজু

তোমার দেওয়া ফুল

আপডেট সময় : ০৩:৪১:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২২

:: সজীব খান  ::

তোমার দেওয়া ফুল আজও রেখেছি যত্ন করে আমার হৃদয় পিঞ্জরে, অনুভবে শুধুই তুমি। তোমার সব অস্থিত্ব আমাকে ভাবায় যে সব সময়, তোমার মায়াবী রুপ আমাকে যে পাগল করে, তাই বার বার ছুটে যাই তোমার কাছে, নয়ন ঝুড়ে তোমায় দেখে ও স্বাধ মিটেনা। অপলক নয়নে তাকিয়ে কিছুক্ষণ দেখে চলে আসতে হয়, কারন বিজয়ের পথ যে অনেক দূর!

Model Hospital

তুমি কি আমায় অনুভব কর, আমি যে ভাবে তোমাকে অনুভবে রেখেছি। নাকি আমার এক কেন্দ্রীয় চাওয়াটা শুধুই পাগলামি। আরও আগে কেন তোমায় দেখা হলনা, যখন দেখা হল, তোমাকে একান্ত করে পেতে মন চাইলো, তখন নিজেদের একটা বাঁধায় কিছুটা সীমাবদ্ধতায় রাখতে হচ্ছে। তারপরও প্রেমের দোপাট্টা যখন উড়ছে মনে, তোমাকে ভুলে থাকা যে সম্ভব হচ্ছেনা। হাতে বালা আর কোপালে সিধুঁর দিলেই তো সব শেষ হয়না, নিজেকে সুখী ভাবা যায়না, এর ভেতরে ও যন্ত্রনা আর কষ্টে নিজেকে কুড়ে কুড়ে ধ্বংস করতে হচ্ছে। যখনি তোমার সাথে কথা হয়, তখন তুমি ও যে সুখী নও বুঝে নিজেকে আড়াঁল করে তোমাকে নয়ন ভরে দেখে চলে আসতে হয়। কারন তোমাকে যে আমি ভালবাসি, তোমার আমার মিলনের পথ অনেক দূর, তাই আমার অন্ধ প্রেমের কাহিনী অজন্ম ইতিহাস হয়ে থাকবে।

মাঝে মাঝে তোমার এক গেয়ামী মনোভাবে কষ্ট হলেও নিমিষেই সব ভুলে গিয়ে, ভাবি হয়তো বা ভুল সবটাই আমার, এটা আমার পাগলামি। সকাল সন্ধ্যা কিংবা রাতে মনের অজান্তেই প্রতিনিয়ত তোমায় মনে পড়ে, রাতে যখন তন্দ্রা ভাঙ্গে, তখন মনছুটে যায় তোমার কাছে, অনুভব করতে করতে ফের এক সময় চোখে তন্দ্রা নামে।

মাঝে মাঝে তোমার অস্থিত্ব, না বলা কথায় মনে করে দেয় তুমি যে আমার। তোমাকে কি দিয়ে উপমা দিবো জানিনা, আমার বুকভরা ভালবাসা সবই অর্থহীন, তারপর ও তোমাকে ভুলতে পারছিনা। কি করবো, উত্তর জানা নেই আমার, নিজেকে নিজে অনেক প্রশ্ন করি, নিজের প্রশ্নের ভেড়াজালে আমি যে নিজেই ঘরবন্ধী, তোমাকে ভুলতে অনেক চেষ্টা করি, কিন্তু পারিনা, এটাকি আমার অপরাধ, এত প্রেম আমার, সে প্রেমের কলি কি কখনে ফুটেনা।

আমার অস্থিত্বে ঝুড়ে তুমি, আমার নিঃশেষ যেন তোমার জন্য,বিশেষ মূহুত্বে যখন তোমায় মনে পড়ে, তখন আর কিছু ভাল লাগেনা, জানা অজানা সব কিছু নিয়েই তুমি, একাকিত্ব যখন আমাকে স্পর্শ করে, তখন তোমার জল্পনা কল্পনা আমাকে উদাসীন করে, উড় প্রেম আমার বার বার তোমার কাছে ছুটে যায়, তোমাকে পেতে চায় একান্ত নিজের করে। ভালবাসতে চাই মনপ্রান উজার করে। জানিনা কিসের এতটান, এ ছেলে মানুষী আমার কবে দূর হবে। এত ছেলে মানুষীর অবশান কোথায়। তোমার চোখের হাসি, ঠোঁটে লিপিষ্টিক, আর চোখ ঝোড়ানো হিজাব আমাকে উদাশীন করে। তুমি হাসলে ফুল ফুটে,তুমি কাঁদলে মেঘ ঝড়ে। তোমার আমার প্রেম নষ্টালজিয়া হবে কালের আর্বতনে। যখনি তুমি আসবে, তখনি দুই হাত মেলে তোমাকে বুকে নিবে এ অবুঝ মন আমার।