ঢাকা ০৭:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে আগুনে পুড়ে ৭টি দোকান ভষ্মিভূত

মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনে পুড়ে ৭টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে ।

Model Hospital

শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ২টা বাজে শাহরাস্তি উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউপির দোপল্লা বাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এদিকে ওই সংবাদ চাউর হতেই স্থানীয় সাংসদ মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ক্ষতিগ্রস্তদের সমবেদনা জানিয়ে উপজেলা নির্বাহি অফিসার শিরীন আক্তারকে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার নির্দেশ দেন।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক, ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়,ওই রাতে দোকানি মোঃ জহিরুল ইসলামের আল মদিনা বেকারি থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে একটি হার্ডওয়ার দোকান, মোঃ শফিকুর রহমানের কাপড় ও মুদি দোকান, সেলিম মিয়ার ওষুধের দোকান , ইকবাল হোসেনের স্বর্ণকার দোকান এবং দুলাল মিয়ার পান দোকান ভষ্মিভূত হয়। ওই সংবাদ পেয়ে হাজিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের একটি টিম ঘটনাস্থলে হাজির হন।

পরে ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবু মোঃ সাজেদুল হক কবির জোয়াদ্দারের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। এরইমধ্যে শাহরাস্তি ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স বাহিনী সেখানে যোগ দেয়। তিনি বলেন, এতে প্রায় দোকানিদের ৩০ থেকে৪০ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশে প্রকৃত ক্ষয়ক্ষতি নির্ণয় করা যাবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

উন্নত জীবন ও পুষ্টি নিরাপত্তায় প্রাণিজ আমিষের গুরুত্ব অপরিসীম : মেজর রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি

শাহরাস্তিতে আগুনে পুড়ে ৭টি দোকান ভষ্মিভূত

আপডেট সময় : ০৬:০৩:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ নভেম্বর ২০২১

মোঃ মাসুদ রানা : চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনে পুড়ে ৭টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে ।

Model Hospital

শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ২টা বাজে শাহরাস্তি উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউপির দোপল্লা বাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এদিকে ওই সংবাদ চাউর হতেই স্থানীয় সাংসদ মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ক্ষতিগ্রস্তদের সমবেদনা জানিয়ে উপজেলা নির্বাহি অফিসার শিরীন আক্তারকে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার নির্দেশ দেন।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক, ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়,ওই রাতে দোকানি মোঃ জহিরুল ইসলামের আল মদিনা বেকারি থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে একটি হার্ডওয়ার দোকান, মোঃ শফিকুর রহমানের কাপড় ও মুদি দোকান, সেলিম মিয়ার ওষুধের দোকান , ইকবাল হোসেনের স্বর্ণকার দোকান এবং দুলাল মিয়ার পান দোকান ভষ্মিভূত হয়। ওই সংবাদ পেয়ে হাজিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের একটি টিম ঘটনাস্থলে হাজির হন।

পরে ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবু মোঃ সাজেদুল হক কবির জোয়াদ্দারের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। এরইমধ্যে শাহরাস্তি ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স বাহিনী সেখানে যোগ দেয়। তিনি বলেন, এতে প্রায় দোকানিদের ৩০ থেকে৪০ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশে প্রকৃত ক্ষয়ক্ষতি নির্ণয় করা যাবে।