ঢাকা ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় ৩শ৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজাসহ ৪মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

র‌্যাবের অভিযানে ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী মো. বিল্লাল এবং মো. ফাহাদ। পাশে কচুয়া থানা পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী মো. সাজ্জাদুল রহমান ও নাছির উদ্দীন।

মো: রাছেল : চাঁদপুরের কচুয়ায় পুলিশ ও র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ৩শ’৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজা সহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Model Hospital

সোমবার গ্রেফতারকৃত ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছে কচুয়া থানা পুলিশ।রবিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কেরকচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বাজার যমুনা ব্যাংক সংলগ্ন এলাকায় র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্প এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো. রায়হানুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন।এসময় চাঁদপুরগামী একটি সাদা লাইটেস গাড়িতে তল্লাসি চালিয়ে সিটের নিচ থেকে ৩শত৯৮ বোতল ফেনসিডিল, ১০ কেজি গাঁজাসহ কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার বাটপাড়া ধনপুর গ্রামের আবুল কালামের পুত্র মো. বিল্লাল (২০) ও একই উপজেলার ভাগালপুর গ্রামের ফরিদ মিয়ার পুত্র মো. ফাহাদ (১৯) কে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্প এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো. রায়হানুল ইসলাম মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, কচুয়া উপজেলার হোসেনপুর বাজারে অপারেশন ডিউটি করাকালীন সময়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মাদক ব্যবসায়ীরাএকটি লাইটেস গাড়ি যোগে মাদকদ্রব্য বহন করে কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ থানারবাটপাড়া এলাকা থেকে বিশ্বরোড হয়েচাঁদপুরের উদ্দেশ্যে আসছে। সংবাদ পেয়ে বিষয়টি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করে প্রাপ্ত সংবাদের সত্যতা যাচাইয়ের নিমিত্তে আমি ও আমার সঙ্গীয় ফোর্সসহ রবিবার সকাল ৭টার সময় চাঁদপুর জেলার কচুয়া থানার কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কের কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বাজার যমুনা ব্যাংক সংলগ্ন এলাকায় একটি চেকপোষ্ট পরিচালনা করি। এসময় একটি সন্দেহভাজন লাইটেসকে থামানোর সংকেত দিলে চালক গাড়িটি না থামিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে গতিরোধ করেআমরা লাইটেসটিকে থামিয়ে যাত্রী ও চালককেজিজ্ঞাসাবাদ করে গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে সিটের নিচ থেকে ৩শত৯৮ বোতল ফেনসিডিল, ১০ কেজি গাঁজাউদ্ধারসহ নগদ ২৩হাজার৭শত৬০ টাকা ও সাদা লাইটেসটিকেজব্দ করি।

তাছাড়া একই দিন সন্ধ্যায়কচুয়া থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) মামুনুর রশিদ উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর এলাকায় কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কে অভিযান পরিচালনা করে নোয়াখালী সদর উপজেলার ফজলুর রহমানের ছেলে মো. সাজ্জাদুল রহমানের কাছ থেকে ৪কেজি এবং পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার আল-আমিনের ছেলে নাছির উদ্দীনের কাছ থেকে ৪ কেজি মোট ৮ কেজি গাঁজাসহ তাদের গ্রেফতার করে।এবিষয়ে কচুয়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে ৩টি নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন জানান, মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ও কচুয়া থানা পুলিশ পৃথক ৩টি অভিযানে মোট৩শ৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজাসহ ৪জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। সোমবার পুলিশি পাহারায় গ্রেফতারকৃতদের চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এবং মাদক বিরোধী এ বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

২৫নং রালদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়ানুষ্ঠান সম্পন্ন

কচুয়ায় ৩শ৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজাসহ ৪মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০১:২০:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২

মো: রাছেল : চাঁদপুরের কচুয়ায় পুলিশ ও র‌্যাবের পৃথক অভিযানে ৩শ’৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজা সহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Model Hospital

সোমবার গ্রেফতারকৃত ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করেছে কচুয়া থানা পুলিশ।রবিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কেরকচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বাজার যমুনা ব্যাংক সংলগ্ন এলাকায় র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্প এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো. রায়হানুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন।এসময় চাঁদপুরগামী একটি সাদা লাইটেস গাড়িতে তল্লাসি চালিয়ে সিটের নিচ থেকে ৩শত৯৮ বোতল ফেনসিডিল, ১০ কেজি গাঁজাসহ কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার বাটপাড়া ধনপুর গ্রামের আবুল কালামের পুত্র মো. বিল্লাল (২০) ও একই উপজেলার ভাগালপুর গ্রামের ফরিদ মিয়ার পুত্র মো. ফাহাদ (১৯) কে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-৭ ফেনী ক্যাম্প এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো. রায়হানুল ইসলাম মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, কচুয়া উপজেলার হোসেনপুর বাজারে অপারেশন ডিউটি করাকালীন সময়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মাদক ব্যবসায়ীরাএকটি লাইটেস গাড়ি যোগে মাদকদ্রব্য বহন করে কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ থানারবাটপাড়া এলাকা থেকে বিশ্বরোড হয়েচাঁদপুরের উদ্দেশ্যে আসছে। সংবাদ পেয়ে বিষয়টি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে অবহিত করে প্রাপ্ত সংবাদের সত্যতা যাচাইয়ের নিমিত্তে আমি ও আমার সঙ্গীয় ফোর্সসহ রবিবার সকাল ৭টার সময় চাঁদপুর জেলার কচুয়া থানার কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কের কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর বাজার যমুনা ব্যাংক সংলগ্ন এলাকায় একটি চেকপোষ্ট পরিচালনা করি। এসময় একটি সন্দেহভাজন লাইটেসকে থামানোর সংকেত দিলে চালক গাড়িটি না থামিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে গতিরোধ করেআমরা লাইটেসটিকে থামিয়ে যাত্রী ও চালককেজিজ্ঞাসাবাদ করে গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে সিটের নিচ থেকে ৩শত৯৮ বোতল ফেনসিডিল, ১০ কেজি গাঁজাউদ্ধারসহ নগদ ২৩হাজার৭শত৬০ টাকা ও সাদা লাইটেসটিকেজব্দ করি।

তাছাড়া একই দিন সন্ধ্যায়কচুয়া থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) মামুনুর রশিদ উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের জগতপুর এলাকায় কুমিল্লা-চাঁদপুর সড়কে অভিযান পরিচালনা করে নোয়াখালী সদর উপজেলার ফজলুর রহমানের ছেলে মো. সাজ্জাদুল রহমানের কাছ থেকে ৪কেজি এবং পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার আল-আমিনের ছেলে নাছির উদ্দীনের কাছ থেকে ৪ কেজি মোট ৮ কেজি গাঁজাসহ তাদের গ্রেফতার করে।এবিষয়ে কচুয়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে ৩টি নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন জানান, মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ও কচুয়া থানা পুলিশ পৃথক ৩টি অভিযানে মোট৩শ৯৮ বোতল ফেনসিডিল ও ১৮ কেজি গাঁজাসহ ৪জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। সোমবার পুলিশি পাহারায় গ্রেফতারকৃতদের চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এবং মাদক বিরোধী এ বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে।