ঢাকা ০৫:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জ চরদুখিয়া সন্তোষপুর পূর্ব সপ্রাবি কেন্দ্র থেকে ব্যালট পেপার, সিল, মূড়ি উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ উপজেলা ১১ নং চরদুখিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রের পিছনের বাগান থেকে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Model Hospital

রবিবার বিকেলে ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বাগান থেকে ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়।

খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি শহিদ হোসেনের নির্দেশে এসআই নাসির সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করে সিজারলিস্ট করেন।
এ সময় উপস্থিত সাক্ষীদের সাক্ষ্য নিয়ে উদ্বার হাওয়া বেলেট পেপার থানায় নিয়ে আসে।

চশমার এজেন্ট মোহাম্মদ আনিসুর রহমান ও আনারস মার্কার এজেন্ট মাহফুজুল জানান, ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং অফিসার কালিবাজার কলেজের প্রভাষক রিপন কুমার দাস মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ হয়ে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বেলেট পেপার দিয়ে ভোট কারচুপির সুযোগ করে দেয়। ভোট গণনার সময় দায়িত্বে থাকা প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ভোট কারচুপি করেছে।

আনারস মার্কার প্রার্থী যে পরিমাণ ভোট পেয়েছে সেই ভোট নৌকার প্রার্থীকে দেখিয়ে তাকে এই কেন্দ্রে জিতিয়ে দিয়েছে। আমরা পুনরায় নির্বাচন চায় নতুবা ভোট গণনা দাবি করছি। এছাড়া অভিযুক্ত প্রিজাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানান।

ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপার উদ্ধারের সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কেন্দ্রের পিছনে গভীর জঙ্গলে নির্বাচিত প্রার্থীর সমর্থকরা ব্যালট পেপারে সিল মেরে সেগুলো বক্সের ভিতরে ঢুকিয়ে রেখেছে। ব্যালট পেপারের মুড়িগুলো জঙ্গলে রেখে তারা চলে গেলে সেগুলো দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানালে অবশেষে তা উদ্ধার করে। এই ভোট কারচুপির ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ পুনরায় এই ইউনিয়নের নির্বাচন দাবি করছি।

এদিকে ফরিদগঞ্জ থানার এসআই নাসির জানায়,১১ নং চরদুখিয়া ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পিছনে বাগান থেকে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করে সিজার লিস্ট করা হয়েছে। পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদগঞ্জ চরদুখিয়া সন্তোষপুর পূর্ব সপ্রাবি কেন্দ্র থেকে ব্যালট পেপার, সিল, মূড়ি উদ্ধার

আপডেট সময় : ১২:২৭:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ উপজেলা ১১ নং চরদুখিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রের পিছনের বাগান থেকে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Model Hospital

রবিবার বিকেলে ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বাগান থেকে ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়।

খবর পেয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি শহিদ হোসেনের নির্দেশে এসআই নাসির সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করে সিজারলিস্ট করেন।
এ সময় উপস্থিত সাক্ষীদের সাক্ষ্য নিয়ে উদ্বার হাওয়া বেলেট পেপার থানায় নিয়ে আসে।

চশমার এজেন্ট মোহাম্মদ আনিসুর রহমান ও আনারস মার্কার এজেন্ট মাহফুজুল জানান, ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং অফিসার কালিবাজার কলেজের প্রভাষক রিপন কুমার দাস মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ হয়ে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের বেলেট পেপার দিয়ে ভোট কারচুপির সুযোগ করে দেয়। ভোট গণনার সময় দায়িত্বে থাকা প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ভোট কারচুপি করেছে।

আনারস মার্কার প্রার্থী যে পরিমাণ ভোট পেয়েছে সেই ভোট নৌকার প্রার্থীকে দেখিয়ে তাকে এই কেন্দ্রে জিতিয়ে দিয়েছে। আমরা পুনরায় নির্বাচন চায় নতুবা ভোট গণনা দাবি করছি। এছাড়া অভিযুক্ত প্রিজাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানান।

ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপার উদ্ধারের সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কেন্দ্রের পিছনে গভীর জঙ্গলে নির্বাচিত প্রার্থীর সমর্থকরা ব্যালট পেপারে সিল মেরে সেগুলো বক্সের ভিতরে ঢুকিয়ে রেখেছে। ব্যালট পেপারের মুড়িগুলো জঙ্গলে রেখে তারা চলে গেলে সেগুলো দেখতে পেয়ে পুলিশকে জানালে অবশেষে তা উদ্ধার করে। এই ভোট কারচুপির ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ পুনরায় এই ইউনিয়নের নির্বাচন দাবি করছি।

এদিকে ফরিদগঞ্জ থানার এসআই নাসির জানায়,১১ নং চরদুখিয়া ১ নং ওয়ার্ডের ৯৩ নং সন্তোষপুর পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পিছনে বাগান থেকে ব্যালট পেপারে, সিল, মূড়ি উদ্ধার করে সিজার লিস্ট করা হয়েছে। পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।