ঢাকা ০৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাইমচরে ২টিতে স্বতন্ত্র, ২টিতে নৌকা বিজয়ী

মোঃ সাজ্জাদ হোসেন রনি : হাইমচরে  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪ ইউনিয়নের নির্বাচন সুষ্ঠু, সুন্দর ও উৎসব মুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
এবারের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের নৌকার ২ জন, স্বতন্ত্র ২ জন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন ছিল শান্তিপূর্ণ। নির্বাচনে উপজেলার ৪ ইউনিয়নের মোট ২৩  জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) সকাল থেকে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকল কেন্দ্রেই ছিলো ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি। শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোটারগন তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দিতে পেরে মহা খুসিতে আত্মহারা সাধারণ জনগন।
২ নং আলগী উত্তর ইউনিয়নে ৬৯০৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা যুবলীগ সাবেক সভাপতি মো. আতিকুর রহমান পাটোয়ারী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মাকসুদ আলম খান পেয়েছেন ৪৩৫৬ ভোট। হাবিবুর রহমান বেগ মটর সাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৯৮১, হাতা পাখা প্রতীকের প্রার্থী রুহুল আমিন পেয়েছেন ১১২৪ ভোট, আনারস প্রতীকের আব্দুল কুদ্দুছ পাটোয়ারী পেয়েছেন ২১৬ ভোট।
৩ নং আলগী দক্ষিন ইউনিয়নে স্বতন্ত্র থেকে সরদার আব্দুল জলিল আনারস প্রতীক নিয়ে ১০১১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের সাহাউদ্দিন টিটু পেয়েছেন ৫৪৪৭ ভোট, হাতপাখা প্রতীকের সবুজ পেয়েছেন ৩৪৪ ভোট, চশমা প্রতীকে নুরে আলম জিকু পেয়েছেন ২৩ ভোট। ৪নং নীলকমল ইউনিয়নে স্বতন্ত্র থেকে আনারস প্রতীকে সউদ আল নাছের ৫৩০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা মার্কার প্রার্থী সালাউদ্দিন সরদার পেয়েছেন ২৯৯৪ ভোট, ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী ইয়াছিন রতন পেয়েছেন ৮৭৩ ভোট, হাতপাখা মার্কার রায়হান উদ্দিন পেয়েছে ১৭৩ ভোট, নাঙ্গল প্রতীকে আবু সুফিয়ান মাঝি পেয়েছে ৩৭ ভোট।
৫ নং হাইমচর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে জুলফিকার আলী জুলহাস সরকার ১২৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকে মনজুরুল হক নাঈম সরকার পেয়েছেন ১২১১ ভোট, আনারস প্রতীকে আব্দুল হক মোল্লা পেয়েছে ১১৮২ ভোট, হাতপাখা প্রতীকে রাজা মিয়া সরদার পেয়েছে ১০৬ ভোট ও চশমা প্রতীকে শাহিন মিয়া পেয়েছেন ৪২ ভোট।
ট্যাগস :

হাইমচরে ২টিতে স্বতন্ত্র, ২টিতে নৌকা বিজয়ী

আপডেট সময় : ০৫:২০:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জানুয়ারী ২০২২
মোঃ সাজ্জাদ হোসেন রনি : হাইমচরে  ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪ ইউনিয়নের নির্বাচন সুষ্ঠু, সুন্দর ও উৎসব মুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
এবারের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের নৌকার ২ জন, স্বতন্ত্র ২ জন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন ছিল শান্তিপূর্ণ। নির্বাচনে উপজেলার ৪ ইউনিয়নের মোট ২৩  জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) সকাল থেকে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকল কেন্দ্রেই ছিলো ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি। শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোটারগন তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দিতে পেরে মহা খুসিতে আত্মহারা সাধারণ জনগন।
২ নং আলগী উত্তর ইউনিয়নে ৬৯০৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা যুবলীগ সাবেক সভাপতি মো. আতিকুর রহমান পাটোয়ারী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মাকসুদ আলম খান পেয়েছেন ৪৩৫৬ ভোট। হাবিবুর রহমান বেগ মটর সাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৯৮১, হাতা পাখা প্রতীকের প্রার্থী রুহুল আমিন পেয়েছেন ১১২৪ ভোট, আনারস প্রতীকের আব্দুল কুদ্দুছ পাটোয়ারী পেয়েছেন ২১৬ ভোট।
৩ নং আলগী দক্ষিন ইউনিয়নে স্বতন্ত্র থেকে সরদার আব্দুল জলিল আনারস প্রতীক নিয়ে ১০১১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের সাহাউদ্দিন টিটু পেয়েছেন ৫৪৪৭ ভোট, হাতপাখা প্রতীকের সবুজ পেয়েছেন ৩৪৪ ভোট, চশমা প্রতীকে নুরে আলম জিকু পেয়েছেন ২৩ ভোট। ৪নং নীলকমল ইউনিয়নে স্বতন্ত্র থেকে আনারস প্রতীকে সউদ আল নাছের ৫৩০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা মার্কার প্রার্থী সালাউদ্দিন সরদার পেয়েছেন ২৯৯৪ ভোট, ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী ইয়াছিন রতন পেয়েছেন ৮৭৩ ভোট, হাতপাখা মার্কার রায়হান উদ্দিন পেয়েছে ১৭৩ ভোট, নাঙ্গল প্রতীকে আবু সুফিয়ান মাঝি পেয়েছে ৩৭ ভোট।
৫ নং হাইমচর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকে জুলফিকার আলী জুলহাস সরকার ১২৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকে মনজুরুল হক নাঈম সরকার পেয়েছেন ১২১১ ভোট, আনারস প্রতীকে আব্দুল হক মোল্লা পেয়েছে ১১৮২ ভোট, হাতপাখা প্রতীকে রাজা মিয়া সরদার পেয়েছে ১০৬ ভোট ও চশমা প্রতীকে শাহিন মিয়া পেয়েছেন ৪২ ভোট।