ঢাকা ১১:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদানের দায়ে

হাজীগঞ্জ পপুলার হাসপাতাল ও মেডিসিন কর্ণারকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদানে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সহ মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়ার অপরাধে মেডিসিন কর্ণারকে জরিমানা করেছে চাঁদপুর জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

Model Hospital

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের অর্পিত ক্ষমতাবলে এবং চাঁদপুর জেলা প্রশাসক এর সার্বিক নির্দেশনা মোতাবেক শুক্রবার (৩ মে) ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ মোতাবেক লঙ্ঘনজনিত অপরাধে হাজীগঞ্জ বাজারে অবস্থিত পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের প্যাথলজি রুমে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদান, বাহিরের লোক দিয়ে ব্লাড গ্রহণে ডোনারের রক্তপাত ঘটানো এবং যথাযথ উপায়ে সেবা প্রদান না করার অপরাধে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

একই সাথে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়ার অপরাধে হাসপাতালের নিচে অবস্থিত মেসার্স মেডিসিন কর্ণারকে ৩০ হাজার টাকা সহ উক্ত দুই প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে চাঁদপুর জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নূর হোসেন।

জানা যায়, পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগের চিত্র গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তুলে ধরেন হাজীগঞ্জ সহ আশপাশের স্বেচ্ছাসেবী ও সাধারণ লোকজন। এবং চাঁদপুর ভোক্তা অধিদপ্তরে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার অভিযান পরিচালনা করা হয়।

হাজীগঞ্জ থানা পুলিশের সার্বিক নিরাপত্তায় এ অভিযান পরিচালনাকালে নূর হোসেন বলেন, পপুলার হাসপাতালের পরিবেশের অবস্থা খুবই নাজুক। সেই সাথে মেডিসিন কর্ণারেও বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়া যায়। ভবিষ্যতে যেন এরূপ অনৈতিক ও অযৌক্তিক কার্য থেকে বিরত থাকে তার জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে আইনগত হুশিয়ারি করা হয়।

ট্যাগস :

অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদানের দায়ে

হাজীগঞ্জ পপুলার হাসপাতাল ও মেডিসিন কর্ণারকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

আপডেট সময় : ০৯:৩০:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদানে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সহ মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়ার অপরাধে মেডিসিন কর্ণারকে জরিমানা করেছে চাঁদপুর জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

Model Hospital

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের অর্পিত ক্ষমতাবলে এবং চাঁদপুর জেলা প্রশাসক এর সার্বিক নির্দেশনা মোতাবেক শুক্রবার (৩ মে) ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ মোতাবেক লঙ্ঘনজনিত অপরাধে হাজীগঞ্জ বাজারে অবস্থিত পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের প্যাথলজি রুমে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে সেবা প্রদান, বাহিরের লোক দিয়ে ব্লাড গ্রহণে ডোনারের রক্তপাত ঘটানো এবং যথাযথ উপায়ে সেবা প্রদান না করার অপরাধে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

একই সাথে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়ার অপরাধে হাসপাতালের নিচে অবস্থিত মেসার্স মেডিসিন কর্ণারকে ৩০ হাজার টাকা সহ উক্ত দুই প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে চাঁদপুর জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নূর হোসেন।

জানা যায়, পপুলার হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগের চিত্র গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তুলে ধরেন হাজীগঞ্জ সহ আশপাশের স্বেচ্ছাসেবী ও সাধারণ লোকজন। এবং চাঁদপুর ভোক্তা অধিদপ্তরে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার অভিযান পরিচালনা করা হয়।

হাজীগঞ্জ থানা পুলিশের সার্বিক নিরাপত্তায় এ অভিযান পরিচালনাকালে নূর হোসেন বলেন, পপুলার হাসপাতালের পরিবেশের অবস্থা খুবই নাজুক। সেই সাথে মেডিসিন কর্ণারেও বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়া যায়। ভবিষ্যতে যেন এরূপ অনৈতিক ও অযৌক্তিক কার্য থেকে বিরত থাকে তার জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে আইনগত হুশিয়ারি করা হয়।