ঢাকা ১১:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে নৌকা ও আনারসের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষে আহত ২৫

ফরিদগঞ্জে নৌকা ও আনারস প্রতীকের সমর্থকদের হামলায় ভাঙ্গচুরকৃত মোটর সাইকেল।

এস. এম ইকবাল : ফরিদগঞ্জে আনারস মার্কার সমর্থনে আয়োজিত মোটর সাইকেল শোভাযাত্রায় নৌকা মার্কার সমর্থকরা হামলা করার অভিযোগ উঠেছে।
২৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার রুপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের গৃদকালিন্দিয়া বাজার এলাকায় চাঁদপুর-লক্ষ্মীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ১৫/২০ জন আহত হয়েছে এবং অন্তত ২০ টি মোটর সাইকেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।
হামলায় আহত এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল কাদের খোকন একটি মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা বের করেন শোভাযাত্রাটি গৃদকালিন্দিয়া কলেজ এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা নৌকার প্রার্থীর মিছিলের মুখোমুখি হয়। এ সময় উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে ১৫/২০ জন আহত হন এবং অন্তত ২০ টি মোটর সাইকেল ভাংচুর করা হয়। আহতরা ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল এবং লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন বলে জানা গেছে।
সংঘর্ষের বিষয়ে আনারস প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল কাদের খোকন বলেছেন, আমরা শোভাযাত্রা নিয়ে বাজারের দিকে যাচ্ছিলাম গৃদকালিন্দিয়া কলেজ এলাকায় পৌঁছলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরীফ খান এবং তার সমর্থকরা আমাদের অস্ত্র নিয়ে হামলা করেছে। তারা আমাদের অন্তত ৩০ টি মোটরসাইকেল ভাংচুর ও অন্তত ২০/২৫ জনকে আহত করেছে। আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী ওই তান্ডব দেখেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি মামলা করবো।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ভাইস চেয়ারম্যান জিএস তছলিম আহমেদ বলেন, আমরা শরীফ খান ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিচার চাই।
এদিকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরীফ খান জানান, আমি প্রতিদিনের ন্যায় কর্মীরাসহ বাজারে গণসংযোগের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলাম, মহাসড়কে উঠলে আনারস প্রতীকের প্রার্থী এবং তার সমর্থকরা আমার কর্মীদের উপর হামলা করলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। আমি এ হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করছি।

Model Hospital

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শহীদ হোসেন বলেন, আচরণ বিধি লংঘন করে শতাধিক মোটরসাইকেল নিয়ে শোভাযাত্রা করছিলো আনারস প্রতীকের প্রার্থী আবদুল কাদের খোকন ও তার সমর্থকরা। সেখানে বিপরীত দিক থেকে আসা নৌকার মিছিলের মুখোমুখি হলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আমি তাৎক্ষণিকফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি।

তিনি আরো জানান, সংঘর্ষে কিছু মোটর সাইকেল ভাংচুর ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরে লঞ্চে শুরু হয়েছে নাড়ির টানে বাড়ি ফেরা

ফরিদগঞ্জে নৌকা ও আনারসের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষে আহত ২৫

আপডেট সময় : ০২:৪২:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২১
এস. এম ইকবাল : ফরিদগঞ্জে আনারস মার্কার সমর্থনে আয়োজিত মোটর সাইকেল শোভাযাত্রায় নৌকা মার্কার সমর্থকরা হামলা করার অভিযোগ উঠেছে।
২৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার রুপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের গৃদকালিন্দিয়া বাজার এলাকায় চাঁদপুর-লক্ষ্মীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ১৫/২০ জন আহত হয়েছে এবং অন্তত ২০ টি মোটর সাইকেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।
হামলায় আহত এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল কাদের খোকন একটি মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা বের করেন শোভাযাত্রাটি গৃদকালিন্দিয়া কলেজ এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা নৌকার প্রার্থীর মিছিলের মুখোমুখি হয়। এ সময় উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে ১৫/২০ জন আহত হন এবং অন্তত ২০ টি মোটর সাইকেল ভাংচুর করা হয়। আহতরা ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল এবং লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন বলে জানা গেছে।
সংঘর্ষের বিষয়ে আনারস প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল কাদের খোকন বলেছেন, আমরা শোভাযাত্রা নিয়ে বাজারের দিকে যাচ্ছিলাম গৃদকালিন্দিয়া কলেজ এলাকায় পৌঁছলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরীফ খান এবং তার সমর্থকরা আমাদের অস্ত্র নিয়ে হামলা করেছে। তারা আমাদের অন্তত ৩০ টি মোটরসাইকেল ভাংচুর ও অন্তত ২০/২৫ জনকে আহত করেছে। আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী ওই তান্ডব দেখেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি মামলা করবো।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ভাইস চেয়ারম্যান জিএস তছলিম আহমেদ বলেন, আমরা শরীফ খান ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিচার চাই।
এদিকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরীফ খান জানান, আমি প্রতিদিনের ন্যায় কর্মীরাসহ বাজারে গণসংযোগের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলাম, মহাসড়কে উঠলে আনারস প্রতীকের প্রার্থী এবং তার সমর্থকরা আমার কর্মীদের উপর হামলা করলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। আমি এ হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহণে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করছি।

Model Hospital

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শহীদ হোসেন বলেন, আচরণ বিধি লংঘন করে শতাধিক মোটরসাইকেল নিয়ে শোভাযাত্রা করছিলো আনারস প্রতীকের প্রার্থী আবদুল কাদের খোকন ও তার সমর্থকরা। সেখানে বিপরীত দিক থেকে আসা নৌকার মিছিলের মুখোমুখি হলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আমি তাৎক্ষণিকফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি।

তিনি আরো জানান, সংঘর্ষে কিছু মোটর সাইকেল ভাংচুর ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।