ঢাকা ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১১ জন গ্রেফতার

চাঁদপুরের কচুয়া থানার পুলিশের পৃথক পৃথক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ১১ জন ওয়ারেন্টভুক্ত ও নিয়মিত মামলার আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে।

Model Hospital

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, উপজেলার পরানপুর প্রধানীয়া বাড়ীর আব্দুল কাদেরের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪০), কুটিয়া-লক্ষীপুর গ্রামের সোহাগের বাড়ীর মৃত আবুল কালাম আজাদের মেয়ে সুখি বেগম (রিয়া) (৩০), ডুমুরিয়া খামার বাড়ীর নুরুল ইসলামের ছেলে সুমন (৩৮), তারাপাল্লা বেপারী বাড়ীর মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৩২), নোয়াগাঁও গ্রামের আনোয়ারের স্ত্রী হাসিনা বেগম (৪০), শ্রীরামপুর গ্রামের হাজী বাড়ীর মৃত আবুল খায়ের মাস্টারের ছেলে মো. নিজাম উদ্দিন রাজন (৩৫), কড়ইয়া বেপারী বাড়ীর জামাল হোসেনের ছেলে আল-আমিন রানা (২২), একই বাড়ীর আবু তাহেরের ছেলে মো. নাহিদ হোসেন (২১), হাতিরবন গ্রামের দৌলত মিয়ার ছেলে রিপন (২৬), শ্রীরামপুর কর্মকার বাড়ীর মৃত সুবল কর্মকারের ছেলে প্রদীপ কর্মকার (৩৩), করইশ প্রধানীয়া বাড়ির ছাদেক মিয়ার ছেলে মহসিন (২৭)।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ও নিয়মিত মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী হিসেবে গ্রেফতার করে তাদেরকে চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

২৫নং রালদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়ানুষ্ঠান সম্পন্ন

কচুয়ায় থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১১ জন গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৬:২৪:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২৩

চাঁদপুরের কচুয়া থানার পুলিশের পৃথক পৃথক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ১১ জন ওয়ারেন্টভুক্ত ও নিয়মিত মামলার আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে।

Model Hospital

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, উপজেলার পরানপুর প্রধানীয়া বাড়ীর আব্দুল কাদেরের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪০), কুটিয়া-লক্ষীপুর গ্রামের সোহাগের বাড়ীর মৃত আবুল কালাম আজাদের মেয়ে সুখি বেগম (রিয়া) (৩০), ডুমুরিয়া খামার বাড়ীর নুরুল ইসলামের ছেলে সুমন (৩৮), তারাপাল্লা বেপারী বাড়ীর মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৩২), নোয়াগাঁও গ্রামের আনোয়ারের স্ত্রী হাসিনা বেগম (৪০), শ্রীরামপুর গ্রামের হাজী বাড়ীর মৃত আবুল খায়ের মাস্টারের ছেলে মো. নিজাম উদ্দিন রাজন (৩৫), কড়ইয়া বেপারী বাড়ীর জামাল হোসেনের ছেলে আল-আমিন রানা (২২), একই বাড়ীর আবু তাহেরের ছেলে মো. নাহিদ হোসেন (২১), হাতিরবন গ্রামের দৌলত মিয়ার ছেলে রিপন (২৬), শ্রীরামপুর কর্মকার বাড়ীর মৃত সুবল কর্মকারের ছেলে প্রদীপ কর্মকার (৩৩), করইশ প্রধানীয়া বাড়ির ছাদেক মিয়ার ছেলে মহসিন (২৭)।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ও নিয়মিত মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী হিসেবে গ্রেফতার করে তাদেরকে চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।