ঢাকা ১২:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জে বাম গণতান্ত্রিক জোটের রোড মার্চ অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : কেন্দ্রীয় বাম গণতান্ত্রিক জোটের রোড মার্চ কর্মসূচি উপলক্ষে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

৩ নভেম্বর হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারে আয়োজিত রোড মার্চে চাঁদপুর জেলা বাসদের আহবায়ক শাহাজান তালুকদারের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড শাহ আলম, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, কমিউনিষ্ট লীগের সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, ওয়ার্কাস পার্টি (মার্কসবাদী) এর সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবীর জাহিদ, বাসদ (মার্কসবাদী) এর ভারপ্রাপ্ত সমন্বয়ক ফখরুদ্দিন কবির আতিক প্রমুখ।

এ সময় বক্তরা বলেন, কুমিল্লার ঘটনা আর্ন্তজাতিক ষড়যন্ত্র। কিন্তু সরকার তা বুঝতে ব্যার্থ হয়েছে। তাই আমরা বলবো এ ব্যর্থ সরকারের সময়ে কোন ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয়।

আজকে যে জন্য আমাদের এ রোড মার্চ তা সরেজমিনে এসে বুঝতে পারলাম হাজীগঞ্জে প্রাণহানির জন্য পুলিশ দায়ী। কারন তারা সেইদিন যদি মূখে আঙ্গুল দিয়ে দাড়িয়ে না থাকতো তাহলে এতো বড় দূর্ঘটনা ঘটতো না। যত মন্দিরে হামলা হয়েছে এসব দায় সরকারকে নিতে হবে। আমরা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা চাই না। বাংলাদেশের মানুষ এক ও অভিন্ন হয়ে নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে, সেই নিশ্চয়তা আজ এ রোড মার্চ থেকে সরকারের কাছে দাবি জানাই।

উক্ত রোডমার্চে গণসংহতি আন্দোলন, জাতীয় পরিষদের সদস্য মনির উদ্দিন সহ বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন, ও কমিউনিস্ট লীগ এর কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

চাঁদপুরের তিন উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা কে কত ভোট পেলেন

হাজীগঞ্জে বাম গণতান্ত্রিক জোটের রোড মার্চ অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৪:০৩:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ নভেম্বর ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার : কেন্দ্রীয় বাম গণতান্ত্রিক জোটের রোড মার্চ কর্মসূচি উপলক্ষে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়।

Model Hospital

৩ নভেম্বর হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারে আয়োজিত রোড মার্চে চাঁদপুর জেলা বাসদের আহবায়ক শাহাজান তালুকদারের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, সিপিবি এর সাধারণ সম্পাদক কমরেড শাহ আলম, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, কমিউনিষ্ট লীগের সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, ওয়ার্কাস পার্টি (মার্কসবাদী) এর সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবীর জাহিদ, বাসদ (মার্কসবাদী) এর ভারপ্রাপ্ত সমন্বয়ক ফখরুদ্দিন কবির আতিক প্রমুখ।

এ সময় বক্তরা বলেন, কুমিল্লার ঘটনা আর্ন্তজাতিক ষড়যন্ত্র। কিন্তু সরকার তা বুঝতে ব্যার্থ হয়েছে। তাই আমরা বলবো এ ব্যর্থ সরকারের সময়ে কোন ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয়।

আজকে যে জন্য আমাদের এ রোড মার্চ তা সরেজমিনে এসে বুঝতে পারলাম হাজীগঞ্জে প্রাণহানির জন্য পুলিশ দায়ী। কারন তারা সেইদিন যদি মূখে আঙ্গুল দিয়ে দাড়িয়ে না থাকতো তাহলে এতো বড় দূর্ঘটনা ঘটতো না। যত মন্দিরে হামলা হয়েছে এসব দায় সরকারকে নিতে হবে। আমরা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা চাই না। বাংলাদেশের মানুষ এক ও অভিন্ন হয়ে নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে, সেই নিশ্চয়তা আজ এ রোড মার্চ থেকে সরকারের কাছে দাবি জানাই।

উক্ত রোডমার্চে গণসংহতি আন্দোলন, জাতীয় পরিষদের সদস্য মনির উদ্দিন সহ বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন, ও কমিউনিস্ট লীগ এর কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতারা উপস্থিত ছিলেন।