ঢাকা ১২:২৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুরে চলন্ত মোটরসাইকেলে টিকটক রেকর্ড করতে গিয়ে দুই আরোহীর মৃত্যু

চলন্ত মোটরসাইকেলে টিকটকের ভিডিও করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ কিশোর মোটরসাইকেল আরোহীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

Model Hospital

১২ মে শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর- রায়পুর সড়কের গাছতলা এলাকায় এই মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, চাঁদপুর শহরের চৌধুরীপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল মালেক প্রধানের ছেলে সাব্বির হোসেন ১৮ ও আদর্শ মুসলিম পাড়া এলাকার ফজলুল হকের ছেলে অনিম (১৯)। এই ঘটনায় তাদের সাথে থাকা রাহাত (১৬) নামের আরেক বন্ধু আহত হয়েছেন।

এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় নিহতদের বন্ধুবান্ধব সহ সকল আত্মীয়-স্বজনের মাঝে গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। দুর্ঘটনার পর পরই স্বজনরা আড়াই,শ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ছুটে যান। নিহতের স্বজন ও একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার দুপুরে তারা তিন বন্ধু একটি মোটরসাইকেল করে শহর থেকে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৮নং বাগাদী ইউনিয়নের চৌরাস্তা এলাকায় ঘুরে বেড়াতে যান। সেখান থেকে তারা ফিরে আসার সময় টিকটক বানানোর জন্য চলন্ত মোটরসাইকেলে মুঠোফোন দিয়ে ভিডিও করতে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান তারা টিকটকের ভিডিও করতে,করতে একসময় তাদের মোটরসাইকেলটি রাস্তার রং সাইটে চলে গেলে গাছতলা বাদামতলা নামকস্থানে গেলে হঠাৎ বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি স্কুটারের সাথে তাদের বহনকৃত মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ ঘটে। এতে করে ওই মোটরসাইকেলে থাকা তিন আরোহী রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে গুরুতরভাবে আহত হয়ে পড়েন। আহত বন্ধু এবং অন্যান্য প্রত্যক্ষদর্শীরা তাদের সেখান থেকে উদ্ধার করি চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাদের দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, তাদের দু,জনের পুরো শরীরে অনেক আঘাত ও রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন পেয়েছি। এখানে তাদেরকে মৃতই নিয়ে আসা হয়েছে। আমি তাদের পরীক্ষা নীরিক্ষা শেষে মৃত দেখতে পাই।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, আমি শুনেছি যে দুজন মোটরসাইকেল আরোহী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। আমি এখনো সেখানে যাইনি। তবে হ থানা থেকে ফোর্স পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ক্যাব চাঁদপুরের আয়োজনে বাজার পরিস্থিতি ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক মত বিনিময় সভা

চাঁদপুরে চলন্ত মোটরসাইকেলে টিকটক রেকর্ড করতে গিয়ে দুই আরোহীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৭:০৩:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ মে ২০২৩

চলন্ত মোটরসাইকেলে টিকটকের ভিডিও করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ কিশোর মোটরসাইকেল আরোহীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

Model Hospital

১২ মে শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর- রায়পুর সড়কের গাছতলা এলাকায় এই মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, চাঁদপুর শহরের চৌধুরীপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল মালেক প্রধানের ছেলে সাব্বির হোসেন ১৮ ও আদর্শ মুসলিম পাড়া এলাকার ফজলুল হকের ছেলে অনিম (১৯)। এই ঘটনায় তাদের সাথে থাকা রাহাত (১৬) নামের আরেক বন্ধু আহত হয়েছেন।

এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় নিহতদের বন্ধুবান্ধব সহ সকল আত্মীয়-স্বজনের মাঝে গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। দুর্ঘটনার পর পরই স্বজনরা আড়াই,শ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ছুটে যান। নিহতের স্বজন ও একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার দুপুরে তারা তিন বন্ধু একটি মোটরসাইকেল করে শহর থেকে চাঁদপুর সদর উপজেলার ৮নং বাগাদী ইউনিয়নের চৌরাস্তা এলাকায় ঘুরে বেড়াতে যান। সেখান থেকে তারা ফিরে আসার সময় টিকটক বানানোর জন্য চলন্ত মোটরসাইকেলে মুঠোফোন দিয়ে ভিডিও করতে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান তারা টিকটকের ভিডিও করতে,করতে একসময় তাদের মোটরসাইকেলটি রাস্তার রং সাইটে চলে গেলে গাছতলা বাদামতলা নামকস্থানে গেলে হঠাৎ বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি স্কুটারের সাথে তাদের বহনকৃত মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ ঘটে। এতে করে ওই মোটরসাইকেলে থাকা তিন আরোহী রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে গুরুতরভাবে আহত হয়ে পড়েন। আহত বন্ধু এবং অন্যান্য প্রত্যক্ষদর্শীরা তাদের সেখান থেকে উদ্ধার করি চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাদের দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, তাদের দু,জনের পুরো শরীরে অনেক আঘাত ও রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন পেয়েছি। এখানে তাদেরকে মৃতই নিয়ে আসা হয়েছে। আমি তাদের পরীক্ষা নীরিক্ষা শেষে মৃত দেখতে পাই।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ জানান, আমি শুনেছি যে দুজন মোটরসাইকেল আরোহী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। আমি এখনো সেখানে যাইনি। তবে হ থানা থেকে ফোর্স পাঠানো হয়েছে।