ঢাকা ০৩:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার : জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে এক মুক্তিযোদ্ধা কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

জানাযায়, চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের আলগী গ্রামের মিজি বাড়ির বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাই মিজি ও লতিফ মিজির সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিন যাবত চলে আসছে।

এ বিরোধের জের ধরে গত ৩ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লতিফ মিজির ছেলে সোহেল মিজি (৩২), জাহাঙ্গীর মিজি (৩৫), আলমগীর মিজি (৪০), ফারুক মিজি (৫০), খোরশেদ মিজি (৩৮) সহ আরো সংঘবদ্ধ ২০/৩০ জনের মতো লোকজন নিয়ে এবং দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাই মিজির সম্পত্তি দখল করার চেষ্টা চালালে তিনি এতে বাঁধা প্রদান করলে উল্লেখিত ব্যক্তিরা মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজি কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

পরে তাঁর পরিবারের সদস্যরা মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজিকে বাঁচাতে ৯৯৯ নাম্বারে কল করে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগিতা নিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়।

বর্তমানে আহত মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ বিষয় আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এবিষয়ে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটোয়ারী বলেন, আমি ঘটনা শুনে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়েছি।

ট্যাগস :

শাহরাস্তিতে মাদক মামলায় যুবক আটক

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০২:৫২:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার : জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে এক মুক্তিযোদ্ধা কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

জানাযায়, চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের আলগী গ্রামের মিজি বাড়ির বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাই মিজি ও লতিফ মিজির সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিন যাবত চলে আসছে।

এ বিরোধের জের ধরে গত ৩ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লতিফ মিজির ছেলে সোহেল মিজি (৩২), জাহাঙ্গীর মিজি (৩৫), আলমগীর মিজি (৪০), ফারুক মিজি (৫০), খোরশেদ মিজি (৩৮) সহ আরো সংঘবদ্ধ ২০/৩০ জনের মতো লোকজন নিয়ে এবং দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাই মিজির সম্পত্তি দখল করার চেষ্টা চালালে তিনি এতে বাঁধা প্রদান করলে উল্লেখিত ব্যক্তিরা মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজি কে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

পরে তাঁর পরিবারের সদস্যরা মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজিকে বাঁচাতে ৯৯৯ নাম্বারে কল করে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগিতা নিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়।

বর্তমানে আহত মুক্তিযোদ্ধা হাই মিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ বিষয় আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এবিষয়ে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটোয়ারী বলেন, আমি ঘটনা শুনে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়েছি।