ঢাকা ০৩:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৩ মাসের শিশুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা, পানির ড্রাম থেকে মরদেহ উদ্ধার

মোজাম্মেল প্রধান হাসিব:  চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে আফসানা নামে ৩ মাসের এক শিশুকে পানির ড্রামে ফেলে পরিকল্পীতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

Model Hospital

১১ ফেব্রুয়ারী দুপুরে উপজেলার ২নং নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউনিয়নের কালিয়াইশ গ্রামের প্রধানীয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু কালিয়াইশ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বার বাড়ির রাজমিস্ত্রি আনিসুর রহমান প্রধানের মেয়ে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশ ও শিশুর পরিবার।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত শিশুর বাবা-মা ও দাদীকে পুলিশি হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, মতলব দক্ষিণ উপজেলার ২নং নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের কালিয়াইশ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বারের বাড়ির প্রবাসী জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে রাজমিস্ত্রী আনিসুর রহমান প্রতিদিনের ন্যায় সকালে কাজে চলে যান। এসময় তার স্ত্রী আয়েশা আক্তার ও মা মায়ানুর বেগম বাড়িতে ছিলেন। পরে স্ত্রী আয়েশা আক্তার (৩ মাস) বয়সের শিশু কন্যা আফসানা আক্তারকে বসতঘরে ঘুম পারিয়ে বাড়ির পাশে পুকুরে পানি আনতে যান। পানি নিয়ে ঘরে ফিরে দেখেন আফসানা ঘরে নেই। পরে আশপাশে অনেক খোঁজাখুঁজির পর কোথাও আফসানার সন্ধান না পেয়ে একপর্যায়ে পরিবারের সদস্যসহ বাড়ির লোকজনের চোখ পড়ে তাঁদের বসতঘরের সামনে রাখা একটি পানির ড্রামের দিকে। কৌতুহলবশত ওই ড্রামের ঢাকনা খোলার পর তাঁরা সেখানে শিশু আফসানার মরদেহ দেখতে পান।

আফসানার বাবা আনিসুর রহমান বলেন, তাঁর কন্যাশিশুকে ড্রামের পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে কে বা কারা এ ঘটনায় জড়িত তা এখনই পরিষ্কারভাবে বলতে পারছেন না।

মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইদুল ইসলাম বলেন, নিহত শিশু আফসানার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এটি একটি পূর্বপরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে মনে হচ্ছে। এঘটানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত শিশুর বাবা-মা ও দাদীকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগস :

বিশাল মিছিল নিয়ে রাজপথে বুয়েট শিক্ষার্থীরা

৩ মাসের শিশুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা, পানির ড্রাম থেকে মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৫:২৭:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মোজাম্মেল প্রধান হাসিব:  চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে আফসানা নামে ৩ মাসের এক শিশুকে পানির ড্রামে ফেলে পরিকল্পীতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

Model Hospital

১১ ফেব্রুয়ারী দুপুরে উপজেলার ২নং নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউনিয়নের কালিয়াইশ গ্রামের প্রধানীয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু কালিয়াইশ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বার বাড়ির রাজমিস্ত্রি আনিসুর রহমান প্রধানের মেয়ে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশ ও শিশুর পরিবার।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত শিশুর বাবা-মা ও দাদীকে পুলিশি হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, মতলব দক্ষিণ উপজেলার ২নং নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের কালিয়াইশ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বারের বাড়ির প্রবাসী জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে রাজমিস্ত্রী আনিসুর রহমান প্রতিদিনের ন্যায় সকালে কাজে চলে যান। এসময় তার স্ত্রী আয়েশা আক্তার ও মা মায়ানুর বেগম বাড়িতে ছিলেন। পরে স্ত্রী আয়েশা আক্তার (৩ মাস) বয়সের শিশু কন্যা আফসানা আক্তারকে বসতঘরে ঘুম পারিয়ে বাড়ির পাশে পুকুরে পানি আনতে যান। পানি নিয়ে ঘরে ফিরে দেখেন আফসানা ঘরে নেই। পরে আশপাশে অনেক খোঁজাখুঁজির পর কোথাও আফসানার সন্ধান না পেয়ে একপর্যায়ে পরিবারের সদস্যসহ বাড়ির লোকজনের চোখ পড়ে তাঁদের বসতঘরের সামনে রাখা একটি পানির ড্রামের দিকে। কৌতুহলবশত ওই ড্রামের ঢাকনা খোলার পর তাঁরা সেখানে শিশু আফসানার মরদেহ দেখতে পান।

আফসানার বাবা আনিসুর রহমান বলেন, তাঁর কন্যাশিশুকে ড্রামের পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে কে বা কারা এ ঘটনায় জড়িত তা এখনই পরিষ্কারভাবে বলতে পারছেন না।

মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইদুল ইসলাম বলেন, নিহত শিশু আফসানার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এটি একটি পূর্বপরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে মনে হচ্ছে। এঘটানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত শিশুর বাবা-মা ও দাদীকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।