ঢাকা ০৬:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কাজ নিয়ে অসুন্তুষ্ঠ মুক্তিযুদ্ধাগন

চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কাজ নিয়ে অসুন্তুষ্ঠ প্রকাশ করছেন উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে মুক্তিযুদ্ধাগন।

সজীব খান : চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কাজ নিয়ে অসুন্তুষ্ঠ মুক্তিযুদ্ধাগন। চাঁদপুর পৌর সভার ১৪নং ওয়ার্ডে ৪তলা বিশিষ্ট সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি করা হয়। ভবনের কাজের গুনগত মান নিয়ে মুক্তিযুদ্ধারা অসুন্তুষ্ঠ প্রকাশ করেছেন।
সোমবার সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা সংসদের দুই বারের নির্বাচিত কমান্ডার আবুল কালাম চিশতীসহ বেশ কয়েকজন মুক্তিযুদ্ধা ভবনটি উদ্বোধনের পর পরির্দশনে যান। এ সময় তারা কমপ্লেক্স ভবনটি পুরো ঘুরে দেখেন। ভবনের গ্লিল, দেয়ালের ফিনিসিংসহ বেশ কিছু কাজে তারা অসুন্তুষ্ঠ বলে জানান।
মুক্তিযুদ্ধাদের স্মৃতি বিজড়িত এ ভবনে মজিব কর্ণার, মুক্তিযুদ্ধাদের কনফারেন্স রুম, বসার রুম, ওয়াশরুম নিচ থেকে উপর তালা ঘুরে ঘুরে ভবনের কাজের ক্রুটিগুলো বের করেন।
পরির্দশনের সময় সদর উপজেলা প্রকৌশলী এ এস এম রাশেদুর রহমান, সদর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোঃ জামাল হোসেনসহ মুক্তিযুদ্ধাগন উপস্থিত ছিলেন।
সদর উপজেলা ২বারের নির্বাচিত মুক্তিযুদ্ধা সংসদের কমান্ডার আবুল কালাম চিশতী বলেন, আমাদের সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি। আমাদের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় সরকার বিভাগের তদারকিতে ভবনটি করেন, এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিরঋুনি। কিন্তু ঠিকার আমাদের ভবনটির কাজ সঠিক ভাবে করেনি।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

২৫নং রালদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়ানুষ্ঠান সম্পন্ন

চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কাজ নিয়ে অসুন্তুষ্ঠ মুক্তিযুদ্ধাগন

আপডেট সময় : ০১:৫৪:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১
সজীব খান : চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কাজ নিয়ে অসুন্তুষ্ঠ মুক্তিযুদ্ধাগন। চাঁদপুর পৌর সভার ১৪নং ওয়ার্ডে ৪তলা বিশিষ্ট সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি করা হয়। ভবনের কাজের গুনগত মান নিয়ে মুক্তিযুদ্ধারা অসুন্তুষ্ঠ প্রকাশ করেছেন।
সোমবার সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা সংসদের দুই বারের নির্বাচিত কমান্ডার আবুল কালাম চিশতীসহ বেশ কয়েকজন মুক্তিযুদ্ধা ভবনটি উদ্বোধনের পর পরির্দশনে যান। এ সময় তারা কমপ্লেক্স ভবনটি পুরো ঘুরে দেখেন। ভবনের গ্লিল, দেয়ালের ফিনিসিংসহ বেশ কিছু কাজে তারা অসুন্তুষ্ঠ বলে জানান।
মুক্তিযুদ্ধাদের স্মৃতি বিজড়িত এ ভবনে মজিব কর্ণার, মুক্তিযুদ্ধাদের কনফারেন্স রুম, বসার রুম, ওয়াশরুম নিচ থেকে উপর তালা ঘুরে ঘুরে ভবনের কাজের ক্রুটিগুলো বের করেন।
পরির্দশনের সময় সদর উপজেলা প্রকৌশলী এ এস এম রাশেদুর রহমান, সদর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোঃ জামাল হোসেনসহ মুক্তিযুদ্ধাগন উপস্থিত ছিলেন।
সদর উপজেলা ২বারের নির্বাচিত মুক্তিযুদ্ধা সংসদের কমান্ডার আবুল কালাম চিশতী বলেন, আমাদের সদর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি। আমাদের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় সরকার বিভাগের তদারকিতে ভবনটি করেন, এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিরঋুনি। কিন্তু ঠিকার আমাদের ভবনটির কাজ সঠিক ভাবে করেনি।