ঢাকা ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজরাকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলা হবে : চেয়ারম্যান প্রার্থী শহীদ উল্লাহ মাস্টার

মতলব উত্তরের গজরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শহিদ উল্লাহ প্রধান সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তরের গজরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শহিদ উল্লাহ প্রধান বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।

Model Hospital

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি, জেলা শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির প্রেসিডিয়াম সদস্য, গজরা ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং সভাপতি শহীদ উল্লাহ মাস্টার ১৮ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকালে নৌকা প্রতীকের পক্ষে মতলব উত্তরের বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় বলেছেন, ১৯৬৬ সন থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে, বাংলাদেশের সফল রাষ্ট্রনায়ক দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের সারথি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।

যার ফলশ্রুতিতে আমাকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি নৌকা প্রতীকে মনোনীত করে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ দিয়েছেন।

শহীদ উল্লাহ মাস্টার বলেন, আমি ৪৫ বছর শিক্ষকতার মহান পেশায় নিয়োজিত ছিলাম। মতলব উত্তরের ঐতিহ্যবাহী ওটারচর উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষক হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করে অবসরপ্রাপ্ত গ্রহণ করেছি। গজরা ইউনিয়নের ১৭টি গ্রামেই আমার অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। তাঁরাই স্বতস্ফুত ভাবে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে নৌকা প্রতীকের পক্ষে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

শহীদ উল্লাহ মাস্টার আরো বলেন, গজরা ইউনিয়নের প্রত্যেকটি গ্রামে নৌকার গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে, গজরা ইউনিয়নের দলীয় নেতা কর্মী ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং,সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো।সে সাথে অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা হবে। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের বার্তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে অসমাপ্ত কাজ গুলো করে যাবো।

তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন,তাঁর সাথে যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন, বিশেষ করে গজরা ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আবুল কালাম আজাদ, বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হানিফ দর্জি, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াহেদুজ্জামান সরকার ওয়াদুদ, মতলব সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন প্রধান। তাঁরা সকলেই শহীদ উল্লাহ মাস্টার কে সমর্থন দিয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করছেন।

ছেংগারচর পৌর সভার প্যানেল মেয়র আব্দুল মান্নান বেপারী বলেন, শহীদ উল্লাহ স্যার আমার আত্মীয় ও শিক্ষা গুরু। তিনি সাদা মনের মানুষ।২৮ তারিখ পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট ভিক্ষা চেয়ে বিজয়ী হয়ে সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছেংগারচর পৌর সভার প্যানেল মেয়র আব্দুল মান্নান বেপারী, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরে আলম প্রধান, গজরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এমএম সাইফুল ইসলাম, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন বেপারী প্রমুখ।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

হাজীগঞ্জে ১৭ দিনের নবজাতক বিক্রির অভিযোগ!

গজরাকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলা হবে : চেয়ারম্যান প্রার্থী শহীদ উল্লাহ মাস্টার

আপডেট সময় : ০২:২৯:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর ২০২১

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তরের গজরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শহিদ উল্লাহ প্রধান বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন।

Model Hospital

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি, জেলা শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির প্রেসিডিয়াম সদস্য, গজরা ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং সভাপতি শহীদ উল্লাহ মাস্টার ১৮ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকালে নৌকা প্রতীকের পক্ষে মতলব উত্তরের বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় বলেছেন, ১৯৬৬ সন থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে, বাংলাদেশের সফল রাষ্ট্রনায়ক দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের সারথি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।

যার ফলশ্রুতিতে আমাকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি নৌকা প্রতীকে মনোনীত করে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ দিয়েছেন।

শহীদ উল্লাহ মাস্টার বলেন, আমি ৪৫ বছর শিক্ষকতার মহান পেশায় নিয়োজিত ছিলাম। মতলব উত্তরের ঐতিহ্যবাহী ওটারচর উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষক হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করে অবসরপ্রাপ্ত গ্রহণ করেছি। গজরা ইউনিয়নের ১৭টি গ্রামেই আমার অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। তাঁরাই স্বতস্ফুত ভাবে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে নৌকা প্রতীকের পক্ষে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

শহীদ উল্লাহ মাস্টার আরো বলেন, গজরা ইউনিয়নের প্রত্যেকটি গ্রামে নৌকার গনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে, গজরা ইউনিয়নের দলীয় নেতা কর্মী ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ নিয়ে বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং,সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো।সে সাথে অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা হবে। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের বার্তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে অসমাপ্ত কাজ গুলো করে যাবো।

তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন,তাঁর সাথে যারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন, বিশেষ করে গজরা ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আবুল কালাম আজাদ, বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হানিফ দর্জি, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াহেদুজ্জামান সরকার ওয়াদুদ, মতলব সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন প্রধান। তাঁরা সকলেই শহীদ উল্লাহ মাস্টার কে সমর্থন দিয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করছেন।

ছেংগারচর পৌর সভার প্যানেল মেয়র আব্দুল মান্নান বেপারী বলেন, শহীদ উল্লাহ স্যার আমার আত্মীয় ও শিক্ষা গুরু। তিনি সাদা মনের মানুষ।২৮ তারিখ পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট ভিক্ষা চেয়ে বিজয়ী হয়ে সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছেংগারচর পৌর সভার প্যানেল মেয়র আব্দুল মান্নান বেপারী, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরে আলম প্রধান, গজরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এমএম সাইফুল ইসলাম, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন বেপারী প্রমুখ।